নার্সরাই চিকিৎসাসেবার আসল নায়ক, চাই উচ্চতর প্রশিক্ষণ ন্যাশনাল হাসপাতাল ও ম্যাক্স হাসপাতাল

13

 

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র মো. গিয়াস উদ্দীন আর্ন্তুজাতিক নার্স দিবসের আলোচনা সভায় বলেছেন, নার্সরা আমাদের জীবনের আসল নায়ক। সমাজের প্রতি নার্সদের অবদান ও মানুষের সেবায় যেভাবে তারা কাজ করেন তা সবার সামনে তুলে ধরতে এই দিনটি পালন করা হচ্ছে।তনি আরো বলেন, করোনা মহামারীতে সারাবিশ্ব নার্সদের অবদান অতুলনীয়। চিকিৎসকদের মতো নার্সরাও কোভিড-১৯ এর মহামারীর সঙ্গে লড়াইয়ে প্রথম সারির যোদ্ধা হিসেবে ভূমিকা রেখেছে। এই ভূমিকা রাখতে গিয়ে আমরা অনেক চিকিৎসক ও নার্সদের অকালে হারিয়েছি। সভায় তাদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে পরিবারের গভীর সমবেদনা জানানো হয়। বৃহস্পতিবার সকালে নগরীর ন্যাশনাল হাসপাতাল ও ম্যাক্স হাসপাতালে নার্স দিবস পালন উপলক্ষে পৃথক পৃথক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ন্যাশনাল হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. মোহাম্মদ ইউছুপ, নির্বাহী পরিচালক ডাঃ আবু নাসের, পরিচালক ডাঃ আনোয়ার, মো.শহীদ, প্রফেসর মো. মাজারুল হক নাসিম, ডাঃ আব্দুস সালাম , ডাঃ এস.এম কামরুল হক, ম্যাক্স হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডাঃ লিয়াকত আলী খাঁন, মেডিকেল পরিচালক আবুল কাসেম মাসুদ, ডাঃ রঞ্জন প্রসাদ দাশগুপ্ত, মেট্রোন কামরুল নাহার প্রমুখ। ভারপ্রাপ্ত মেয়র আরো বলেন, আধুনিক নার্সিংয়ের প্রতিষ্ঠাতা ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেলকে সম্মান জানিয়ে এই বিশেষ দিন উদযাপন করা হয়। মাতৃ¯েœহে অচেনা অজানা অসুস্থ রোগীকে সেবায় ও যতেœ সুস্থ করে তোলেন এই নার্সরাই। দুঃখজনকভাবে হলেও সত্য যে, দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে নার্সিং সেবাক্ষেত্রে বাংলাদেশের অবস্থান সবচেয়ে নিচে। তিনি এই বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে নার্সদের উচ্চ শিক্ষা ও উচ্চতর প্রশিক্ষণ দেয়ার উপর গুরুত্বারোপ করেন।

চট্টগ্রাম ইমপেরিয়াল কলেজ অব নার্সিং
“স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনায় শক্তিশালী নার্স নেতৃত্বের বিকল্প নেই- বিশ্ব স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে নার্সিং খাতে বিনিয়োগ বাড়ান এবং নার্সদের অধিকার সংরক্ষণ করুন” এ  গানকে সামনে রেখে চট্টগ্রাম ইমপেরিয়াল কলেজ অব নার্সিং এর উদ্যোগে ক্যাম্পাসে আন্তর্জাতিক নার্স দিবস ২০২২ উদযাপন করা হয়। এ উপলক্ষে ১২ মে বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থী ও হাসপাতালের নার্সবৃন্দের অংশগ্রহনে একটি র‌্যালী ইমপেরিয়াল হাসপাতালের ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে।এরপর কলেজের নিজস্ব মিলনায়তনে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশিষ্ট লায়ন নেত্রী ও প্রাক্তন লায়ন জেলা গভর্নর কামরুন মালেক বলেন, চিকিৎসা ক্ষেত্রে রোগী সেবায় চিকিৎসকের চাইতেও নার্সের দায়িত্ব অনেক বেশী। স্বাগত বক্তব্যে হাসপাতালের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা রবিউল হোসেন বলেন, বাংলাদেশে মান সম্মত নার্স ও নার্সিং ইন্সটিটিউটের অভাব রয়েছে। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, ইমপেরিয়াল হাসপাতেলের সি এম ও অধ্যাপক ডা তারেক আল নাসির, চট্টগ্রাম ইমপেরিয়াল কলেজ অব নার্সিং এর উপাধ্যক্ষ ডলি আক্তার, নির্সিং ইনচার্জ জিন্স জর্জ। অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদেরকে “ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেল শপথ বাক্য” পাঠ করান কলেজের উপাধ্যক্ষ ডলি আক্তার। এরপর দিবসটি উপলক্ষে আয়োজিত কুইজ প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদেরকে সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। নার্স দিবস উপলক্ষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সুসান্ত মৈথী এর “নার্স” কবিতাটি আবৃত্তি করেন নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থী অর্পিতা ভদ্র প্রাপ্তি, “আমরা সেবক সেবিকা, সেবা-ই তো আমাদের ধর্ম” শিরোনামে দলীয় গান পরিবেশন করেন শিক্ষার্থী অনুস্কা চৌধুরী, জান্নাতুল নূর নয়ন, চন্দ্রশেখর দে। অনুষ্ঠানে অর্পিতা ভদ্র প্রাপ্তি’র নির্দেশনায় “লেডি উইথ দি ল্যাম্প” নাটক উপস্থাপন করা হয়। ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেল এর সম্মানে আন্তর্জাতিক নার্স দিবস তার জন্ম দিবসেই পালন করা হয় বিধায়, তার স্মরণে কেক কেটে দিবসটি উদযাপন করা হয়। অনুষ্ঠানে সমাপনী বক্তব্য উপস্থাপন করেন হাসপাতালের একাডেমিক কোওর্ডিনেটর ডা আরিফ উদ্দিন।বিজ্ঞপ্তি