নবীজীর আগমন বিশ্ববাসীর সর্বশ্রেষ্ঠ নেয়ামত

9

মোস্তফা-হাকিম ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন :
আলহাজ মোস্তফা-হাকিম ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন’র ব্যবস্থাপনায় ও সাবেক মেয়র এম মনজুর আলম এর উদ্যোগে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী উপলক্ষে উত্তর কাট্টলী আলহাজ্ব মোস্তফা-হাকিম কলেজ চত্বরে গতকাল বাদ মাগরিব ঈদে মিলাদুন্নবি মাহফিলের আয়োজন করা হয়। ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ও সাবেক মেয়র এম মনজুর আলম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, আওলাদে রাসুল সৈয়দ মোহাম্মদ সাবির শাহ (ম.জি)। আলোচক ছিলেন জামিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলীয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা অছিউর রহমান, মুহাদ্দিস মাওলানা মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াজেদ, আরবী প্রভাষক সৈয়দ মাওলানা মোহাম্মদ ইউনুছ রজবী। অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, ‘খুবই তাৎপর্যপূর্ণ মাস মাহে রবিউল আউয়াল। এই মাস ঈদে মিলাদুন্নবীর মাস। এই মাসের ১২ই রবিউল আউয়াল সর্ব শেষ ও সর্ব শ্রেষ্ঠ নবী হযরত মুহাম্মদ (স.) জন্মগ্রহণ করেন। তাই এই মাসের ফজিলত অনেক বেশি। মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স.) কে আমরা দেখি নাই। কিন্তু তাঁর উম্মত হিসেবে আমাদের দায়িত্ব হচ্ছে তাঁকে অনুসরণ করা ও তাঁর দেখানো পথে জীবন অতিবাহিত করা। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, তাহের গ্রুপের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এম এ তাহের, আঞ্জুমানে রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্টের সহ সভাপতি আলহাজ্ব মোহাম্মদ মহসিন, মোস্তফা হাকিম গ্রুপের পরিচালক মোহাম্মদ নিজামুল আলম রাজু, মোহাম্মদ সারওয়ার আলম, মোহাম্মদ ফারুক আজম, মোহাম্মদ সাইফুল আলম, মোহাম্মদ সাহিদুল আলম, উত্তর কাট্টলী আলহাজ্ব মোস্তফা-হাকিম কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলমগীর, উপাধ্যক্ষ মাহফুজুল হক চৌধুরী প্রমুখ। সব শেষে দেশ ও জাতির মঙ্গলকামনায় দোয়া ও মুনাজাত করা হয় ও পীর ভাই বোনদেরকে বায়াত করানো হয় ।

আশেকানে পাক পঞ্জতন আখতার রজা সুন্নিয়া ট্রাস্ট :
নগরীর রুবী গেইটস্থ আশেকানে পাক পঞ্জতন আখতার রজা সুন্নিয়া ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনায় গত বৃহস্পতিবার ওষখাইনীরি নূরীয়া বিষু দরবার শরীফে ৪ দিনব্যাপী পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (দ.) মাহফিল দরবারের সাজ্জাদানশীন গোলামে আহলে বায়তে রাসুল (দ.) পীরে তরিক্বত মৌলানা মীর মুহাম্মদ মঈনুদ্দীন নূরী ছিদ্দিকী ওষখাইনীরি আল কুরাইশীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে তকরীর করেন আওলাদে নূরীয়া বিষু দরবার শরীফ শাহজাদা মীর মোহাম্মদ সাহিলুর রশীদ (ম.জি.আ), শাহজাদা মীর মুহাম্মদ সুলতান উদ্দীন (ম.জি.আ), ইমাম হাশেমী দরবার শরীফের সাজ্জাদানশীন পীরে তরিক্বত আল্লামা মুফতি কাজী আবুল এরফান হাশেমী (ম.জি.আ), আল্লামা বখতিয়ার উদ্দিন আল কাদেরী, আল্লামা ফরিদুল আলম রেজভী, চন্দনাইশ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আল্লামা সোলায়মান ফারুকী, মাওলানা শরফুদ্দীন আকবরী (মা.জি.আ), মাওলানা সাইফুদ্দীন খালেদ জোহাদী, মাওলানা মাহবুবুল হক নূরী, মাওলানা রায়হানুল ইসলাম আল কাদেরী, মাওলানা ইসমাইল আনসারী নূরী, মাওলানা আবছার উদ্দীন আল কাদেরী, মাওলানা আব্দুর রহমান নূরী, মাওলানা শহীদুল ইসলাম আল কাদেরী প্রমুখ। সভাপতির বক্তব্যে শাইখ আল্লামা মঈনুদ্দীন নূরী ছিদ্দিকী বলেন, মিলাদুন্নবী (দ.) ইসলামী ঐক্যের প্রতীক ইসলামী ঐতিহ্যের স্মারক, ইসলামী সংস্কৃতির এক গৌরবময় ও বরতমময় আমল, হাজার বছর ধরে পৃথিবীর দেশে দেশে এ ধারা আবহমান কাল থেকে প্রচলিত, মুসলিম বিশ্বের সর্বত্র সমাদৃত। নবী করিম (দ.) আগমন বিশ্ববাসীর জন্য সর্বশ্রেষ্ঠ নেয়ামত। আজ আমরা এ নেয়ামতের শোকর আদায় করছি। সকল উম্মতে মোহাম্মদীকে এ নেয়ামতের শোকর আদায় করার জন্য উদাত্ত আহŸান জানান।