নগরে জোড়াখুনের মামলায় একজনের মৃত্যুদন্ড

21

নগরের কোতোয়ালী থানাধীন বান্ডেল রোড এলাকায় ২০০৯ সালে একটি বাড়িতে ডাকাতির পর ৭০ বছরের নারী ও তার গৃহকর্মীকে হত্যার দায়ে সাইফুল ইসলামের ছেলে মো. সোলায়মানকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছেন অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ জান্নাতুল ফেরদাউস চৌধুরীর আদালত। গতকাল বুধবার এ রায় প্রদান করেন বিচারক।
একই রায়ে পৃথক ধারায় ওই আসামিকে ১০ বছরের কারাদন্ড ও অনাদায়ে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর তসলিম উদ্দিন এই তথ্য জানিয়েছেন।
মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০০৯ সালের ১৮ আগস্ট বিকেলে বান্ডেল রোডের বাসায় খুন হন নুরজাহান বেগম ও গৃহকর্মী পপি। বাসা থেকে ৩ ভরি ৮ আনা স্বর্ণ ডাকাতি করে নিয়ে যায় খুনি। এ ঘটনায় নিহত নুরজাহানের ছেলে ফারুক হোসেন অজ্ঞাতদের আসামি করে মামলা দায়ের করেন।
অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট তসলিম উদ্দিন বলেন, বাসায় স্বর্ণ ডাকাতি শেষে ৭০ বছর বয়সী নুরজাহান বেগম ও বাসার গৃহকর্মীকে হত্যা করে মো. সোলায়মান। হত্যার দায় স্বীকার করে আসামি সোলায়মান আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছিল।