দোকান পুড়িয়ে দেওয়ার মামলা পটিয়ায় ইউপি সদস্য গ্রেফতার

11

দোকান পুড়িয়ে দেওয়ার মামলায় পটিয়া উপজেলার খরনা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার আবদুল করিম (৩০) কে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। গত বুধবার সকাল সাড়ে ৭টায় উপজেলার খরনা ইউনিয়নের লালারখীল টেম্পু স্টেশনের একটি দোকান থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি শামসুল আলমের পুত্র। জানা যায়, উপজেলার খরনা ইউনিয়নের লালারখিল এলাকার একটি জায়গা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। ২০২০ সালের ৪ ফেব্রূয়ারি রাতে বিরোধীয় জায়গায় থাকা ৪টি দোকান প্রতিপক্ষ আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেন। এ ঘটনায় নেজাম উদ্দিন বাদী হয়ে পটিয়া থানায় একটি মামলা করেন। দীর্ঘদিন ইউপি মেম্বার করিম পলাতক থাকলেও গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পটিয়া থানা পুলিশ ওয়ারেন্টভুক্ত আসামিকে গ্রেফতার করেন। এর আগে এ ঘটনায় নুরুল আবছার, মাসুদুল আলম, আইয়ুব আলী ও আবুল কাসেমকে পুলিশ গ্রেফতার করে হাজতে প্রেরণ করে। মামলার বাদি নেজাম উদ্দিন জানান, দোকান পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় তিনি বাদি হয়ে থানায় একটি মামলা করেন। পটিয়া থানার ওসি রেজাউল করিম মজুমদার জানান, ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামী করিম মেম্বারকে পুলিশ গত বুধবার সকালে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করেছে।