দীঘিনালায় ছড়ার ভাঙনে চলাচলের রাস্তা বিলীন

9

দীঘিনালা প্রতিনিধি

খাগড়াছড়ির দীঘিনালার কবাখালী ইউনিয়নের দক্ষিণ মিলনপুর এলাকার ছড়ার ভাঙ্গনে চলাচলের একমাত্র রাস্তাটি বিলীন হতে চলেছে। ফলে চলাচলের ক্ষেত্রে এলাকাবাসী চরম দুর্ভোগে পড়েছে। বর্তমানে এ রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় কোন অসুস্থ রোগী কাঁধে করেই হাসপাতালে নিয়ে যেতে হয়। জানা যায়, এ গ্রামে প্রায় শতাধিক পরিবারের সহস্রাধিক লোকজনের বসবাস। এ গ্রামের একমাত্র রাস্তাটি কবাখালীর ছড়ার ভাঙ্গনের কবলে পড়ে বেশ কয়েক জায়গা ধসে পড়ে। ফলে এ গ্রামের লোকজন চলাচলে চরম বেকায়দায় পড়েছে। তাছাড়া পার্শ্ববর্তী হাচিনসনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এ পথ ধরে আসা-যাওয়া করে। বর্তমানে তাদের চলাচলও কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে।
এ ব্যাপারে দক্ষিণ মিলনপুর গ্রামের বাসিন্দা ফুলমতি বেগম(৫৫) জানান, এ গ্রামের রাস্তাটি আগে প্রায় ১৫ ফুট প্রশস্ত ছিল। কবাখালি ছড়ায় ভাঙ্গতে ভাঙ্গতে এখন প্রায় তিন ফুটের মতো রয়েছে, যেখানে আমাদের চলাচল খুবই কষ্ট হচ্ছে। গ্রামের প্রবীণ বাসিন্দা আশ্রাফ আলী(৯৫) জানান, রাস্তার উপর কাঠের পাটাতন দিয়ে চলাচল করি। ভয় লাগে কখন যেন ভেঙ্গে ছড়ায় পড়ে যাই! দক্ষিণ মিলনপুর গ্রামের ইউপি সদস্য মোঃ জয়নাল আবেদীন জানান, আমার নির্বাচনের পূর্বে এলাকাবাসীর একটাই দাবি ছিল, যেকোন উপায়ে এ রাস্তাটি যেন চলাচলের উপযোগী করা হয়। তাই আবার জোর দাবি- ছড়ার পাশে গাইড ওয়াল নির্মাণ করে এলাকাবাসীর চলাচলের ব্যবস্থা যেন করা হয়। ৩নং কবাখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নলেজ চাকমা জানান, এ রাস্তাটি খুবই জনগুরুত্বপূর্ণ। জরুরিভাবে ছড়ার পাশে ভাঙ্গন কবলিত জায়গায় গাইড ওয়াল করা প্রয়োজন। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে এ ব্যাপারে সুনজর দেয়ার জন্যে অনুরোধ করছি।