দাঁতে ব্যথা কি করোনার লক্ষণ?

46

করোনাভাইরাস চরিত্র পাল্টে নিত্য নতুন রূপে নিজেকে প্রকাশ করছে। তাই পরিবর্তন হচ্ছে এর উপসর্গেও। নতুন নতুন উপসর্গ যোগ হচ্ছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দাঁতে ব্যথাও হতে পারে করোনার লক্ষণ। এটি করোনার নতুন লক্ষণ, এমনটাই মনে করছেন তারা। সমীক্ষায় দেখা গেছে, করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন এমন অনেকেরই দাঁতের সমস্যা শুরু হয়েছে। এমনকী অনেকের দাঁত তুলে ফেলতে হচ্ছে! করোনামুক্ত হওয়ার পর রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাওয়া, ত্বক, চোখ, রেসপিরেটরি সিস্টেম-সহ শরীরের একাধিক ক্ষেত্রে এই ভাইরাস প্রভাব ফেলছে। একাধিক অঙ্গপ্রত্যঙ্গের ক্ষতি করছে।এই কয়েকটি উপসর্গ বা শারীরিক সমস্যার পাশাপাশি অনেকের দাঁতের সমস্যাও হচ্ছে। দাঁতে ব্যথা, এনামেল নষ্ট হয়ে যাওয়া বা মাড়িতে ব্যথা হচ্ছে। যাকে করোনার নতুন উপসর্গ বলে মনে করা হচ্ছে।
অনেক ক্ষেত্রেই বলা হয়েছে ওরাল হেলথের ওপরে করোনার প্রভাব রয়েছে। কিন্তু করোনার জন্যই যে দাঁতের সমস্যা হচ্ছে, তা সেভাবে এখনও প্রমাণিত হয়নি। চিকিৎসকরা বলছেন, করোনা শরীরে রক্ত সরবরাহে ক্ষতি করে। যার কারণে হার্ট, ব্রেন বা শরীরের অন্যান্য অঙ্গপ্রত্যঙ্গে সমস্যা হয়। দাঁতের মাড়ি বা মুখের ভেতরে একাধিক জায়গায় বøাড ভেসেলের অ্যাক্টিভিটি বেশি, তাই যদি রক্ত সরবরাহে সমস্যা হয়, তা হলে দাঁতের সমস্যা হতে পারে। চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা বলছেন, যাদের মুখে বা ন্যাসাল এরিয়ায় ভাইরাস সবচেয়ে বেশি থাকছে, তাদের ক্ষেত্রে ওরাল ক্যাভিটি হওয়ার সমস্যা থাকছে। এই সাইটোকাইন স্টর্মও করোনার সঙ্গে যুক্ত। ডায়াবেটিস, ক্যান্সারের রোগীদের মধ্যে উপসর্গ বেশি থাকে। তবে তাদের যদি এমন দাঁতে ব্যথার উপসর্গ থাকে, তাহলে চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে নেয়া ভালো।
করোনার সঙ্গে দাঁতে ব্যথার সম্পর্ক নিয়ে তেমন প্রমাণিত কিছু তথ্য না থাকলেও দাঁতের যত্ন নেয়া প্রয়োজন। দাঁত পরিষ্কার রাখা, দাঁতের মাড়ি ভালো রাখা খুবই জরুরি। নজর দিতে হবে খাবারের তালিকার দিকেও।