দর্শকের ভালো সাড়া পেয়েছি : চঞ্চল

32

চলচ্চিত্র, মঞ্চ কিংবা বিজ্ঞাপনচিত্রে শিল্পীদের নাচ দেখে মুগ্ধ হন দর্শক। এই মনোমুগ্ধকর নাচের পেছনে মূল কাজটি করে থাকেন কোরিওগ্রাফার। তার ভাবনার প্রতিফলন ঘটান শিল্পীরা। বর্তমান সময়ের সম্ভাবনাময় কোরিওগ্রাফার কিবরিয়া চঞ্চল। চলচ্চিত্র, বিজ্ঞাপনে নিয়মিত কোরিওগ্রাফির কাজ করছেন তিনি।
স¤প্রতি বিপিএলের অন্যতম দল ঢাকা প্লাটুনের থিম সংয়ের ফ্ল্যাশ মবের কোরিওগ্রাফি করেন চঞ্চল। ‘অলিগলি মাঠে-ঘাটে উড়েছে রঙের ফানুস/ ছক্কা চারে মাতোয়ারা ছুটেছে হাজার মানুষ/ বুঝে সবাই হবে লড়াই চলবে এবার তলোয়ারি/ বিজয় উল্লাসে হইহই হুল্লোড়ে/ প্লাটুন খেললে মাঠ কাঁপাবে ঢাকা’ এমন কথার গানটি লিখেছেন রবিউল ইসলাম জীবন ও নেওয়াজ মাহতাব। সুর করেছেন নেওয়াজ মাহতাব ও ইমন চৌধুরী। গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন মুক্তাকী হাসিফ ও নেওয়াজ মাহতাব। এতে পারফর্ম করেছেন কিবরিয়া ড্যান্স ওয়াল্ডের নৃত্যশিল্পীরা। রাইফেল স্কয়ার ও যমুনা ফিউচার পার্কে এর দৃশ্যধারণ করা হয়। এ প্রসঙ্গে কিবরিয়া চঞ্চল বলেন, ‘নিয়মিত কোরিওগ্রাফি করে আসছি। এবার ঢাকা প্লাটুনের থিম সংয়ের ফ্ল্যাশ মব ভিডিওর কোরিওগ্রাফি খুব যত্নসহকারে করেছি। এরই মধ্যে দর্শক এটি পছন্দ করেছেন। এর আগেও বেশকিছু কাজ করে দর্শকের ভালো সাড়া পেয়েছি। চলচ্চিত্রে নিয়মিত কাজ করতে চাই।’
হাবিব-ন্যানসির তুমুল জনপ্রিয় গান ‘আমি তোমার মনের ভেতর একবার ঘুরে আসতে চাই।’ ‘এইতো প্রেম’ সিনেমায় গানটি ব্যবহার করা হয়েছে। এর কোরিওগ্রাফি করেছেন কিবরিয়া চঞ্চল। এতে নেচেছেন শাকিব খান-বিন্দু। এছাড়া এ সিনেমায় ব্যবহৃত আরো তিনটি গানের কোরিওগ্রাফি করেন তিনি। তাছাড়া জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী পড়শির ‘হৃদয় আমার’ গানের কোরিওগ্রাফি করেন তিনি। এতে পারফর্ম করেন নিলয় আলমগীর-পড়শি। ‘আফজাল সুজ’সহ বিভিন্ন বিজ্ঞাপনের কোরিওগ্রাফিও করেছেন তিনি। পাশাপাশি বিভিন্ন স্টেজ শোয়ে দেশের তারকা শিল্পীদের গানের কোরিওগ্রাফি করেছেন। বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলের অনুষ্ঠানের কোরিওগ্রাফি করছেন চঞ্চল।