তিন দশকের বরফ গলাতে সৌদি যাচ্ছেন থাই প্রধানমন্ত্রী

19

পূর্বদেশ অনলাইন
সৌদি আরব সফরে যাচ্ছেন থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুথ চান ওচা। দুই দেশের মধ্যকার তিন দশকের বরফ গলাতে মঙ্গলবার দেশটিতে এ সফরে যাচ্ছেন তিনি। সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। সোমবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।
প্রায় তিন দশক আগে এক থাই নাগরিক সৌদি রাজপরিবারের বিপুল পরিমাণ গহনা চুরি করার ঘটনায় দুই দেশের মধ্যে তীব্র কূটনৈতিক বিরোধ দেখা দেয়। সেই ঘটনার পর এই প্রথমবারের মতো উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে বসছে দুই দেশ।
১৯৮৯ সালে সস্ত্রীক তিন মাসের ছুটিতে গিয়েছিলেন তৎকালীন সৌদি যুবরাজ ফয়সাল। এই সুযোগে তাদের সোনা-রুপা-হীরার বিশাল সম্ভার নিয়ে পালিয়ে যায় প্রাসাদের বিশ্বস্ত কর্মচারী থাই নাগরিক ক্রিয়াংক্রাই তেচামং। এসব অলংকারের দাম ছিল প্রায় ২০ মিলিয়ন ডলার। ইতিহাসে এ ঘটনা ‘ব্লু ডায়মন্ড অ্যাফেয়ার’ নামে পরিচিতি পায়। ওই ঘটনার এক বছরের মাথায় থাইল্যান্ডে তিন সৌদি কূটনীতিক একই রাতে পৃথকভাবে হত্যাকাণ্ডের শিকার হন। এর এক মাসের মাথায় দেশটিতে আরও এক সৌদি ব্যবসায়ী ‌‘নিখোঁজ’ হন।
এসব ঘটনায় দুই দেশের সম্পর্কের ব্যাপক অবনতি ঘটলে থাইল্যান্ডের অর্থনীতিতে এর বিরূপ প্রভাব পড়তে শুরু করে। দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যে নেতিবাচক প্রভাব ছাড়াও বিলিয়ন ডলারের পর্যটন রাজস্ব হারায় দেশটি। সৌদি আরবে চাকরি হারায় কয়েক হাজার থাই অভিবাসী শ্রমিক। একপর্যায়ে রিয়াদের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক পর্যায়ে নিয়ে আসতে আগ্রহী হয়ে ওঠে থাই কর্তৃপক্ষ।
রবিবার সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, দেশটির যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের আমন্ত্রণে থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী প্রয়ুথ চান-ওচা মঙ্গলবার সৌদি আরবে দুই দিনের সফর শুরু করবেন।