ডায়াবেটিসের সাথে কোভিড ভাইরাসের যোগসূত্র রয়েছে

12

 

ডায়াবেটিস সচেতনতা দিবস ২০২১ উপলক্ষে চট্টগ্রাম ডায়াবেটিক জেনারেল হাসপাতালে আজ সকাল ৯টায় সমিতির সভাপতি অধ্যাপক জাহাঙ্গীর চৌধুরীর সভাপতিত্বে রোগী সমাবেশ ও আদর্শ ডায়াবেটিস রোগীদের সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রামের বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডাঃ হাসান শাহরিয়ার কবীর এবং বিশেষ অতিথি চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডাঃ সেখ ফজলে রাব্বী। প্রধান অতিথি চট্টগ্রামের বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডাঃ হাসান শাহরিয়ার কবীর প্রথমেই ভাষা শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, ডায়াবেটিসের সাথে কোভিডের ভাইরাসের একটি যোগসূত্র বিদ্যমান। এজন্য সকল ডায়াবেটিস রোগীদের ভ্যাকসিনেশনে সম্পৃক্ত হতে হবে। ডায়াবেটিস রোগীদের চারটি জিনিস অবশ্যই মেনে চলতে হবে। বিশেষ অতিথি চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডাঃ সেখ ফজলে রাব্বী বলেন, ১৯৫৬ সাল থেকে ডায়াবেটিক হাসপাতালের যাত্রা শুরু। বর্তমানে বিশ্বে যে মহামারী চলছে তা বাংলাদেশেও ছড়িয়ে পড়েছে। প্রতি ৭ সেকেন্ডে একজন মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হচ্ছে। ডায়াবেটিসের কারণে বিবিধ রোগের সৃষ্টি হয়। করোনা ভাইরাসে যে কেউই আক্রান্ত হতে পারেন। সমিতির সভাপতি অধ্যাপক জাহাঙ্গীর চৌধুরী বলেন, ‘কোভিড ও ডায়াবেটিস প্রতিরোধে বাঁচবে জীবন’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ডায়াবেটিস সচেতনতা দিবস পালন করা হচ্ছে। রোগী সমাবেশে নির্বাহী সদস্য মো. হাসান মুরাদের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক ও মুক্তিযোদ্ধা জেলা কমান্ডার মো. সাহাব উদ্দিন, সহ-সভাপতি আলহাজ এস.এম শওকত হোসেন, মিসেস আবিদা মোস্তফা, কোষাধ্যক্ষ আলহাজ্ব এস এম জাফর, নির্বাহী সদস্য মোঃ রাকিবুল ইসলাম, নিজামউদ্দিন মাহমুদ হোসেন, মোঃ আলী চৌধুরী, হাসপাতালের ডেপুটি ডাইরেক্টর ডাঃ নওশাদ আজগার চৌধুরী, এ্যাসিষ্টেন্ট ডাইরেক্টর ও পুষ্টিবিদ হাসিনা আকতার লিপি, সচেতন ডায়াবেটিক রোগী প্রফেসর ইউসুফ জালাল প্রমুখ। অনুষ্ঠানে ২য় পর্বে পুষ্টিবিদ হাসিনা আকতার লিপির সঞ্চালনায় আদর্শ সচেতন ডায়াবেটিস রোগীকে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য আদর্শ রোগী প্রফেসর ইউসুফ জালাল, নাছিমা বেগম, মালেক পারভীন, রেয়াজুল, এয়ার মোহাম্মদ-কে হাসপাতালের পক্ষ থেকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।