টিসিবির উপকারভোগী নির্ধারণের পদ্ধতি জানতে চেয়েছে সংসদীয় কমিটি

5

পূর্বদেশ ডেস্ক

দেশের প্রায় এক কোটি উপকারভোগীর কাছে ভর্তুকি মূল্যে পণ্য বিক্রি করছে ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। এ উপকারভোগী পরিবার কীভাবে নির্বাচন করা হয়েছে তা জানতে চেয়েছে সংসদীয় কমিটি। হালনাগাদ তালিকা সংগ্রহ করে কমিটির কাছে পাঠানোর সুপারিশ করেছে। গতকাল সোমবার জাতীয় সংসদে অনুষ্ঠিত কমিটির বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়। বৈঠক শেষে সংসদ সচিবালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
সূত্রে জানা গেছে, বৈঠকে টিসিবির কার্যক্রম সম্পর্কে প্রতিবেদন কমিটির কাছে উপস্থাপন করা হয়। সেখানে বলা হয়, ২০২২ সালের মার্চ থেকে প্রতি মাসে সারা দেশের নিম্ন আয়ের প্রায় এক কোটি পরিবারের মাঝে গত ২৮ মার্চ পর্যন্ত ২ কোটি লিটার ভোজ্য তেল, ২০ হাজার মেট্রিক টন মসুর ডাল, ১০ হাজার মেট্রিক টন চিনি বিক্রি করে আসছে। রমজানে ছোলা ও খেজুর ভর্তুকি মূল্যে বিক্রি করা হয়।
জানতে চাইলে কমিটির সভাপতি আবুল কালাম আজাদ বলেন, বর্তমানে অগ্রাধিকার তালিকা ধরেই উপকারভোগীদের তালিকা করা হয়েছে। সেটা আমরা আবার খতিয়ে দেখতে বলেছি। পরিসংখ্যান অধিদফতর তালিকা করেছেন সেটার সঙ্গে মিলিয়ে নিতে বলেছি। কোনো উপকারভোগী চিহ্নিত করার সময় নিম্ন আয়ের মানুষ যাতে পায় সেই ব্যবস্থা নিতে বলেছি।
প্রতি ইউনিয়নে যাতে টিসিবির ডিলার থাকে এমন সুপারিশও সংসদীয় কমিটি করেছে বলে জানান কমিটির সভাপতি। তিনি বলেন, টিসিবির কার্যক্রম জোরদার করার জন্য আমরা সুপারিশ করেছি। আমরা দ্রæত টিসিবির স্মার্ট কার্ড চালু করার জন্য বলেছি। সেখানে একজনের মাল আরেকজন যেন নিতে না পারে সেজন্য চেহারা শনাক্ত করার পদ্ধতি রাখার কথা বলেছি। খবর বাংলা ট্রিবিউনের
কমিটির সভাপতি আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে বৈঠকে আরও অংশগ্রহণ করেন কমিটির সদস্য আশরাফ আলী খান খসরু, সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম, আলাউদ্দিন আহম্মদ চৌধুরী, সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারি, আনোয়ারুল আশরাফ খান এবং নাজমা আক্তার।