জাল সনদে চাকরি দুদকের হাতে ধরা

17

নিজস্ব প্রতিবেদক

জাল সনদের মাধ্যমে সরকারি চাকরি নেয়ার অভিযোগ উঠেছে চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুলের উচ্চমান সহকারী মো. হাবিবুরের বিরুদ্ধে। সরকারি চাকরির বিধিমালা অমান্য করে আঠারো বছর পূর্ণ হওয়ার আগেই বয়স বাড়িয়ে ৮ম শ্রেণির জাল সনদ দিয়ে তিনি এই চাকরি নিয়েছেন। গতকাল রবিবার কলেজিয়েট স্কুলে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদকের চট্টগ্রাম-১ এর সহকারী পরিচালক ফখরুল ইসলামের নেতৃত্বাধীন একটি এনফোর্সমেন্ট টিম।
দুদক চট্টগ্রাম-১ এর সহকারী পরিচালক ফখরুল ইসলাম বলেন, সরজমিনে উক্ত অফিস পরিদর্শন করে এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের বক্তব্য রেকর্ড ও তথ্য প্রমাণ সংগ্রহ করা হয়েছে। প্রাপ্ত তথ্য থেকে জানা যায় অভিযুক্তের এসএসসি সনদ অনুযায়ী প্রকৃত জন্মতারিখ ২২ নভেম্বর ১৯৮৬। কিন্তু তিনি ২৮ অক্টোবর ২০০৪ তারিখের ৮ম শ্রেণি পাসের সনদ দিয়ে এমএলএসএস পদে চাকরি গ্রহণ করেন। ৮ম শ্রেণির সনদে জন্মতারিখ উল্লেখ করেন ২২ নভেম্বর ১৯৮৫ । প্রকৃতপক্ষে এসএসসির সনদ অনুযায়ী চাকরিতে যোগদানের তারিখে তার বয়স ১৭ বছর ১১ মাস ৬ দিন। সরকারি চাকরি গ্রহণের ন্যূনতম বয়স ১৮ বছর না হওয়া সত্তে¡ও প্রতারণাম‚লকভাবে চাকরি গ্রহণের সত্যতা প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হয়েছে। এর প্রকৃত সত্যতা উদঘাটনের জন্য এ সংক্রান্ত আরো তথ্য-প্রমাণ সংগ্রহ ও রেকর্ডপত্র পর্যালোচনা করে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কমিশন বরাবর পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন দাখিল করবে দুদক টিম।