জাফরাবাদ ফাজিল মাদ্রাসার বার্ষিক পুরস্কার বিতরণ

142

চটগ্রাম-১৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ নজরুল ইসলাম চৌধুরী বলেছেন, মাদ্রাসা শিক্ষাকে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী তথ্য প্রযুক্তি ও যুগোপযোগী করে আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষার্থীদের গড়ে তুলেছেন। ফলে মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার ও বিজ্ঞানী হওয়ার পাশাপাশি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পাচ্ছে। এক সময় সরকারিভাবে মাদ্রাসায় বরাদ্ধ দেয়া হতো না। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ক্ষমতায় আসার পর মাদ্রাসার ভবন, শিক্ষকদের বেতন বৃদ্ধি, উপবৃত্তি, বছরের প্রথম দিন বিনামূল্যে বই বিতরণসহ ব্যাপক পরিবর্তন এনেছেন। কওমী মাদ্রাসাগুলোকে সনদ দিয়ে চাকরীর সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছেন। বিশ্বের উন্নত দেশেও এ ধরনের ব্যবস্থা নেই। প্রত্যেক শিক্ষাকে প্রাধান্য দিয়ে দেশকে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করতে রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়নে সবাইকে কাজে লাগিয়ে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন। নারী শিক্ষাকে এগিয়ে নিয়ে দেশকে সমৃদ্ধির দিকে ধাবিত করেছেন। এক সময় মেয়েদেরকে অবহেলা করা হতো। গত শনিবার উপজেলার জাফরাবাদ ফাজিল মাদ্রাসার বার্ষিক পুরস্কার বিতরণী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উল্লেখিত কথাগুলো বলেছেন। মাদ্রাসা পরিচালনা পরিষদের সভাপতি একেএম সামশুদ্দীনের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন চেয়ারম্যান আনোয়ার মোস্তাফা চৌধুরী দুলাল, জাফরাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ের মো. নুরুল মোস্তাফা, এতিমখানার সভাপতি নুরুল আবছার। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাদ্রাসা অধ্যক্ষ মাও. আবদুল গফুর রেজভী। এতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপাধ্যক্ষ মাও. শাহ আলম, প্রধান শিক্ষক এমএ রহিম, আ.লীগ নেতা ডা. আবুল হোসেন, শিক্ষার্থী জাহেদুল ইসলাম, নাছরিন সুলতানা, নঈম উদ্দীন, সাঈদ বিন নুর প্রমুখ।