জাতিসংঘ বিশেষজ্ঞ খাশোগি হত্যায় ন্যায়বিচার নিশ্চিতে মার্কিন প্রতিবেদনটি জরুরি

12

সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যার ঘটনায় মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হলে তা ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘের বিশেষজ্ঞ অ্যাগনেস ক্যালামার্ড। বিচারবহির্ভূত হত্যাকাÐবিষয়ক এ বিশেষ দূত মনে করেন, এ প্রতিবেদনের মধ্য দিয়ে ২০১৮ সালে খাশোগি হত্যার ঘটনায় কারা দায়ী তা জানা সম্ভব হবে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। ২০১৮ সালের অক্টোবরে তুরস্কের ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে নির্মমভাবে খুন হন সাংবাদিক জামাল খাশোগি। তিনি সৌদির যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের কট্টর সমালোচক ছিলেন। শুরু থেকেই হত্যার নির্দেশদাতা হিসেবে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে সন্দেহ করা হচ্ছে। ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে হত্যার দায় নিজের কাঁধে তুলে নিয়ে যুবরাজ ‘যেহেতু আমার শাসনামলে এ ঘটনা ঘটেছে, তাই হত্যাকাÐের দায় আমার।’ তবে এ হত্যাকাÐ তার অজান্তেই যে ঘটেছে সে কথাও উল্লেখ করেন যুবরাজ সালমান।খাশোগি হত্যার ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় গোয়েন্দা পরিচালক (ডিএনআই) এর কার্যালয় থেকে একটি তদন্ত করা হয়। সাবেক মার্কিব প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সময়ে করা এ তদন্ত প্রতিবেদনটি কখনও প্রকাশ করা হয়নি। তবে নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন শিগগিরই এ প্রতিবেদন প্রকাশের আশ্বাস দিয়েছে।