জর্জ ফ্লয়েড হত্যায় ডেরেক চৌভিন দোষী সাব্যস্ত

3

গত বছর যুক্তরাষ্ট্রের মিনেয়াপলিসে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড হত্যার দায়ে সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক চৌভিনকে দোষী সাব্যস্ত করেছে জুরি। একদিনেরও কম সময় নিয়ে ১২ সদস্যের জুরি প্যানেল মঙ্গলবার মামলাটির রায় ঘোষণা করেন বলে বিবিসি জানিয়েছে। গত বছর মে মাসে জাল নোট ব্যবহারের অভিযোগে গ্রেপ্তারের পর ফ্লয়েডের ঘাড়ে চৌভিনের (৪৫) হাঁটু গেড়ে বসে থাকার ৯ মিনিটের ভিডিও সাড়া বিশ্বে সমালোচনার ঝড় তুলে। সেসময় ফ্লয়েড বারবারই ‘আমি নিঃশ্বাস নিতে পারছি না’ বলে আকুতি জানালেও তা মন গলাতে পারেনি তাকে আটক করা পুলিশ কর্মকর্তার।
ওই ঘটনায় ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর বর্ণবাদ ও পুলিশের অতিরিক্ত শক্তি ব্যবহারের বিরুদ্ধে শুরু হওয়া ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ আন্দোলন যুক্তরাষ্ট্র হয়ে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে। নিরস্ত্র এ কৃষ্ণাঙ্গের মৃত্যুর মাসখানেক পর তার পরিবার শহর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা করে। অত্যন্ত চাঞ্চল্যকর এ মামলায় তিন সপ্তাহের বিচার শেষে মঙ্গলবার রায় আসে। সোমবার উভয় পক্ষের যুক্তিতর্ক শেষ হলে জুরি প্যানেল রায়ের বিষয়ে সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে একটি হোটেলে বাইরের যোগাযোগ থেকে বিচ্ছিন্ন অবস্থায় থাকেন। সর্বসম্মত সিদ্ধান্তে না আসার আগে জুরি সদ্যরা বের হতে পারবে না বলে আগেই বলে দেওয়া হয়। রায় ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে আদালতের বাইরে কয়েকশ মানুষ বিজয়োল্লাসে মেতে উঠেন। তিনটি অভিযোগে চৌভিন দোষী সাব্যস্ত হন; দ্বিতীয় মাত্রার হত্যাকান্ড, তৃতীয় মাত্রার হত্যাকান্ড ও নরহত্যা।
ফ্লয়েডের পরিবারের আইনজীবী বেন ক্রাম্প বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের জন্য এই রায় ‘যুগান্তকারী’। এক টুইটে তিনি বলেন, ‘অনেক বেদনার বিনিময়ে অর্জিত বিচার অবশেষে অর্জিত হলো। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর জবাবদিহির প্রয়োজনীয়তার ক্ষেত্রে এটা স্পষ্ট বার্তা।”