জনগণের ভোটেই নির্বাচিত হয়েছে আওয়ামী লীগ

6

বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারকে ‘রাশিয়ার সরকার’ আখ্যায়িত করে দেশটির ভূমিকা নিয়ে বিএনপি যে অভিযোগ তুলেছে, সেটি নাকচ করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার মান্টিটস্কি। বিএনপির এ ধরনের অভিযোগকে পুরোপুরি অসত্য এবং বিভ্রান্তিকর আখ্যা দিয়ে দলটির উদ্দেশে রুশ রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশের জনগণের ভোটেই আওয়ামী লীগ নির্বাচনে জয় পেয়েছে।
গতকাল বুধবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি বলেন, আমি যেটা বুঝি, এই নির্বাচনে আপনাদের জনগণের বাছাইই ছিল। কর্মকর্তারা বলেছেন, ৪১ দশমিক ৮০ শতাংশ মানুষ এবার ভোট দিয়েছে। যাদের অধিকাংশ ভোট দিয়েছে আওয়ামী লীগকে।
রাশিয়া কী করেছে? আমরা কোনো দেশের রাজনৈতিক বিষয়ে হস্তক্ষেপ করি না, বিশেষ করে বাংলাদেশের মত বন্ধুদেশে। এটা এক ধরনের বিভ্রান্তিকর তথ্য বা মিথ্যা তথ্য। এগুলো বিশ্বাস করবেন না।
গত ৭ জানুয়ারির ভোটে ২২৩টি আসনে জিতে টানা চতুর্থবারের মত সরকার গঠন করেছে আওয়ামী লীগ। এ নির্বাচন নিয়ে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের একাংশ সন্তোষ প্রকাশ করলেও ভোট ‘সুষ্ঠু হয়নি’ বলে বিবৃতি দেয় যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য।
প্রভাবশালী দেশগুলোর মধ্যে চীন, ভারত ও রাশিয়া নির্বাচনের ফলাফলকে স্বাগত জানিয়েছে; নতুন সরকার গঠনে আওয়ামী লীগের প্রশংসা করেছে।
নির্বাচন না গিয়ে আন্দোলনে থাকা বিরোধী দল বিএনপি নতুন সংসদের বিরুদ্ধে কালো পতাকা মিছিলসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছে।
এর মধ্যে শনিবার দলের একটি কর্মসূচিতে স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, আজকে পরিষ্কার ভাষায় বলতে চাই, এই দেশ আমাদের, এই দেশের সমস্যা আমাদের, এই দেশের সমস্যা সমাধান আমরাই করব। সেকারণে আজকে ভারত, চীন আর রাশিয়া তাদের সরকার হাসিনার সরকার, এটা বাংলাদেশের জনগণের সরকার না।
বুধবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদের সঙ্গে বৈঠকের পর বিএনপি নেতাদের এমন অভিযোগ নাকচ করে দেন রাষ্ট্রদূত মান্টিটস্কি।
নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে প্রথম বৈঠকে রাজনীতি, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতা, বাণিজ্য, বিনিয়োগ প্রভৃতি বিষয়ে আলোচনা হওয়ার কথা বলেন রাষ্ট্রদূত মতিঁতস্কি।