চুয়েট ৪র্থ আন্তর্জাতিক পদার্থ বিজ্ঞান কনফারেন্স শনিবার

8

চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এ বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিববর্ষ উদ্যাপন উপলক্ষ্যে পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের আয়োজনে বিগত ৫০ বছরে দেশের পদার্থ বিজ্ঞানের শিক্ষা ও গবেষণার সর্বশেষ অগ্রগতি নিয়ে আগামী ২২ ও ২৩ জানুয়ারি চতুর্থবারের মত ‘টেকসই উন্নয়ন ও প্রযুক্তির জন্য পদার্থবিজ্ঞান’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।
দুইদিনব্যাপী আয়োজিত কনফারেন্সে এবার বাংলাদেশ ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, চীন, নরওয়ে, ভারত ও জাপানসহ পৃথিবীর প্রায় ১০টি দেশ হতে পদার্থ বিজ্ঞান বিষয়ের কয়েকশ শিক্ষক, গবেষক, বিজ্ঞানী, প্রফেশনাল এবং উদ্যোক্তাগণের মিলনমেলা বসবে। উক্ত কনফারেন্সে পদার্থ বিজ্ঞানের বিষয়ের পাশাপাশি প্রযুক্তি সর্ম্পকিত তথা বর্তমান বিশ্বের আলোচিত ইস্যু ‘টেকসই উন্নয়ন ও প্রযুক্তি’ বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রবন্ধসমূহ উপস্থাপিত হবে। এবারের কনফারেন্স থিম হচ্ছে- ‘বাংলাদেশের সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপনে পদার্থবিদ্যা শিক্ষা ও গবেষণার অগ্রগতি’
এ উপলক্ষ্যে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় চুয়েটের পশ্চিম গ্যালারি মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন কনফারেন্স সেক্রেটারি ও পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. এইচ.এম.এ.আর. মারুফ। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন কনফারেন্স চেয়ার ও পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন, কনফারেন্সের টেকনিক্যাল সেক্রেটারি ও পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. স্বপন কুমার রায়, কনফারেন্সের ট্রেজারার ও পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. আশরাফ আলী, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মো. আশরাফ আলী, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. নুসরাত জাহান, কনফারেন্সের যুগ্ন-সদস্য সচিব ও পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মো. মুক্তার হোসেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন জনসংযোগ কর্মকর্তা মুহাম্মদ রাশেদুল ইসলাম।
উল্লেখ্য, দুইদিনব্যাপী কনফারেন্সে ৫টি কী-নোট স্পিস, ৯টি ইনভাইটেড স্পিস, ৮টি টেকনিক্যাল সেশন, ১টি পোস্টার সেশনে মোট ১০১টি প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হবে। এছাড়া দ্বিতীয় দিনে কনফারেন্স থিমের উপর ঢাবি, রাবি, চবি, জাবি, বুয়েট, সাস্ট, জবি, কুয়েট, বাংলাদেশ এটমিক এনার্জি কমিশন ও বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে দেশের প্রতিথযশা পদার্থবিদদের অংশগ্রহণে প্রেজেন্টেশন অনুষ্ঠিত হবে। পাশাপাশি প্যানেল আলোচক হিসেবে অধ্যাপক ড. গোলাম মোহাম্মদ ভূঁইয়া, অধ্যাপক ড. এ.কে.এম. আজহারুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রশীদ, অধ্যাপক ড. মিহির কুমার রায় এবং সকল কী-নোট স্পিকার, ইনভাইটেড স্পিকার, সেশন চেয়ার, কো-চেয়ার ও অংশগ্রহণকারীদের সমন্বয়ে প্যানেল ডিসকাশন অনুষ্ঠিত হবে। এবারের কনফারেন্সে কী-নোট স্পীকার হিসেবে প্রথম দিন মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন- কানাডার আলবার্টা ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ড. ওয়েইন কে. হাইবার্ট, বুয়েটের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আবদুল বাসিত এবং বিএএস ফেলো অধ্যাপক ড. এ.কে.এম. আজহারুল ইসলাম। অন্যদিকে কনফারেন্সের দ্বিতীয়দিনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন- শাহজাহাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. নাজিয়া চৌধুরী ও বিসিএসআইআর’র ড. আবদুল গফুর।
আগামী রবিবার সকাল ১১ টায় ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন চুয়েটের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। অনুষ্ঠানে কনফারেন্স স্পিকার হিসেবে থাকবেন বুয়েটের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. জীবন পোদ্দার। এতে বিশেষ অতিথি থাকবেন প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সুনীল ধর এবং পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. ফারুক-উজ-জামান চৌধুরী। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও কনফারেন্স চেয়ার অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখবেন কনফারেন্স সেক্রেটারি ও পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. এইচ.এম.এ.আর. মারুফ।