চিড়িয়াখানায় জন্ম নিল আরও দুই বাঘ শাবক

15

নিজস্ব প্রতিবেদক

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় বাঘিনী জয়ার ঘরে জন্ম নিয়েছে আরও দুই শাবক। জন্ম নেয়া দুই অতিথিই বাঘিনী বলে জানা গেছে। প্রায় এক মাস আগে গত ১৯ সেপ্টেম্বর বাঘিনী জয়া দুই শাবকের জন্ম দেয়। এর আগে গত বছরের ১৪ নভেম্বর চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় বাঘিনী জয়ার ঘরে জন্ম নিয়েছিল তিন শাবক। মায়ের অবহেলায় পরদিন একটি শাবক এবং ১৮ নভেম্বর আরও একটি শাবক মারা যায়। মূমুর্ষূ অবস্থায় থাকা আরেকটির প্রাণ রক্ষায় নিজের হেফাজতে নেন চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানার ভারপ্রাপ্ত কিউরেটর ডা. শাহাদাত হোসেন শুভ।
ওই সময় ৪৬তম মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেনের জয় প্রায় নিশ্চিত হয়ে এসেছিল। ডা. শুভ তখন বাঘের ছানাটির নাম রেখেছিলেন ‘বাইডেন’। চিড়িয়াখানার কর্মীরা নিজেরাই দুধ খাইয়ে, নিবিড় পরিচর্যা করে, পেলে-পুষে বাঘের ছানাটিকে বাঁচিয়ে তোলেন। সাড়ে পাঁচ মাস পর ২১ এপ্রিল ‘বাইডেন’ নামের বাঘের ছানাটিকে খাঁচায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল।
ডা. শাহাদাত হোসেন শুভ বলেন, দ্বিতীয় দফায় দুই সন্তান জন্ম দেওয়ার পরও শুরুর দিকে বাঘের স্বভাব অনুযায়ী অসহিঞ্চু আচরণ শুরু করে জয়া। তবে আস্তে আস্তে আচরণ পরিবর্তনের ফলে চিড়িয়াখানার কর্মীরা শাবক দুটিকে এখন জয়ার খাঁচাতেই রেখেছেন। সেখানেই ধীরে ধীরে বেড়ে উঠছে জয়ার দুই বাঘিনী শাবক।
২০১৮ সালের জুলাইয়ে চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় রাজ-পরি বাঘ দম্পতির ঘরে বিরল প্রজাতির সাদা বাঘ শুভ্রার সঙ্গে জন্ম হয় জয়ার। রাজ-পরিকে ২০১৬ সালে আফ্রিকা থেকে আনা হয়েছিল। নতুন দুই শাবক নিয়ে চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় বাঘের সংখ্যা এখন ১২টি।
উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় কর্মচারীদের তত্ত¡াবধানে বিভিন্ন পশু পাখির বাচ্চা লালন-পালন করে সেগুলো বনে অবমুক্ত করে দেয়া হচ্ছে।