চন্দনাইশে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণ বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ

চন্দনাইশ প্রতিনিধি

7

সারাদেশের ন্যায় চন্দনাইশের ২টি পৌরসভায় ৬টি, ৮টি ইউনিয়ন পরিষদে ৮টিসহ ১৪টি বিট পুলিশিং কার্যালয়ের উদ্যোগে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণ বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ পৃথকভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ১৭ অক্টোবর জোয়ারা ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে কাঞ্চননগরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে চন্দনাইশ পৌরসভা বিট পুলিশিং এর উদ্যোগে পৌরসভা মিলনায়তনে থানা অফিসার ইনচার্জ নাসির উদ্দিন সরকারের সভাপতিত্বে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এ সকল সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন সহকারী পুলিশ সুপার (হেড কোয়াটার চট্টগ্রাম) সামশুল আরেফিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল জব্বার চৌধুরী, পৌর মেয়র মাহাবুবুল আলম খোকা, চেয়ারম্যান আমিন আহমদ চৌধুরী রোকন, ইন্সেপেক্টর (তদন্ত) মজনু মিয়া, দোহাজারী তদন্ত কেন্দ্রের আইসি আবদুল হালিম, চন্দনাইশ প্রেস ক্লাবের সভাপতি এড মো. দেলোয়ার হোসেন, দক্ষিণ জেলা যুবলীগের অর্থ সম্পাদক সেলিম উদ্দিন, হেলাল উদ্দিন চৌধুরী, জাকের হোসেন চৌধুরী, কাউন্সিলর যথাক্রমে মোজাম্মেল হক চৌধুরী, নুরুল ইসলাম বাঁচা, হাসনারা বেগম প্রমুখ।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, সারা দেশে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের আন্দোলনের প্রেক্ষিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আইন সংশোধন করে ধর্ষণকারীর সর্ব্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদÐ কার্যকর করেছেন। সাধারণ মানুষকে সচেতনতার লক্ষে বাংলাদেশের ৬ হাজার ৯শ ১২টি স্থানে এ সমাবেশের মাধ্যমে জনমত গড়ে তোলা হচ্ছে। এ সময় বক্তারা বলেন, এ ধরণের অসামাজিক ঘটনা ঘটলে সাথে সাথে পার্শ্ববর্তী বিট পুলিশিং কার্যালয়, থানায় অথবা ৯৯৯ এ সংবাদ দেয়ার আহবান জানান। সে সাথে গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য অভিভাবকসহ নারী সমাজকে এগিয়ে আসার অনুরোধ জানানো হয়। সরকার আইন করার পাশাপাশি ভিকটিম সার্পোট সেন্টার, নারী নির্যাতন প্রতিরোধ সেল, নারী নির্যাতন প্রতিরোধে লিগ্যাল ও সার্ভিস টুল্স ব্যবহারে সচেতনতা সৃষ্টির উপর গুরোত্বরাপ করেন।