চট্টগ্রাম ভেন্যু পরিদর্শনে উইন্ডিজ প্রতিনিধি দল

17

ক্রীড়া প্রতিবেদক

পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে জানুয়ারিতে বাংলাদেশ সফরে আসছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল। আইসিসির ফিকশ্চার অনুযায়ী বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ উপলক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট এবং ওয়ানডে সিরিজ খেলার কথা এই দু’দেশের। খেলবে দুটি টি-টোয়েন্টিও। এগুলোর মধ্যে টেস্ট ম্যাচের একটি নগরীর জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে হওয়ার কথা রয়েছে।
তাই ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের খেলোয়াড়দের বাড়তি নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে করোনা পরিস্থিতি ও নিরাপত্তার বিষয় যাচাই উপলক্ষে প্রতিনিধি দলের দুই সদস্য আইসিসি এবং ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের মেডিক্যাল দলের সদস্য ড. আকশাই মানসিং এবং সিকিউরিটি এবং সেফটি ম্যানেজার পল ¯েøাওয়ে গতকাল চট্টগ্রাম পরিদর্শন করে গেছেন। তাদের সাথে ছিলেন বিসিবির চিকিৎসা বিভাগের প্রধান ডা. দেবাশীষ চৌধুরী, ক্রিকেট অপারেশন্স ম্যানেজার শাব্বির খান শাফিন এবং লজিস্টিকস ও প্রটৌকল বিভাগের সহকারী ম্যানেজার কাউসার আজম সজীব।
সকালে হেলিকপ্টারে করে নগরীর এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে অবতরণ করেন তারা। এরপর চট্টগ্রামে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, ম্যাক্স ও ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল এবং হোটেল র‌্যাডিসন বøুর আইসোলেশন সুবিধা পরিদর্শন করেন প্রতিনিধি দল। বিকালে পরিদর্শনে যান এম এ আজিজ স্টেডিয়াম। মাঠে বেশিক্ষণ সময় না কাটালেও ঘুরে দেখেন ড্রেসিং রুম ও প্লেয়ার লাউঞ্জ। একই সঙ্গে এখানকার স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং নিরাপত্তার ব্যাপারে যাচাই করেন। এ বিষয়ে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের ভেন্যু ম্যানেজার ফজলে বারী খান রুবেল জানান ‘মূলত করোনাকালে খেলোয়াড়দের বাড়তি নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি যাচাই করতে প্রতিনিধি দলের বন্দরনগরীতে আগমন।’ এ সময় উপস্থিত ছিলেন সিজেকেএস সহ-সভাপতি এ্যাডভোকেট শাহীন আফতাবুর রেজা চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, মো. মশিউর রহমান চৌধুরী, সিজেকেএস নির্বাহী সদস্য ও ক্রিকেট কমিটির সম্পাদক একেএম আবদুল হান্নান আকবর, সিজেকেএস নির্বাহী সদস্য গোলাম মহিউদ্দীন হাসান, মনোরঞ্জন দে, বিসিবির কিউরেটর জাহিদ রেজা বাবু ও প্রবীণ হঙ্গানিকার, নির্বাহী কর্মকর্তা শাহীন হোসেন ও সাইফুল আলম বাবু, নিরাপত্তা বিভাগের আবদুর রশীদ লোকমান প্রমুখ।
বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ শুরু হতে এখনো দেড় মাসের বেশি সময় বাকি। কিন্তু পরিস্থিতি বিবেচনায় বসে থাকার সুযোগ নেই। যেখানে দল পাঠাবে, সেখানকার অবস্থায় আগেভাগেই নজর রাখতে চায় সফরকারী দল। তাই বাংলাদেশের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা যাচাইয়ে গত শনিবার ঢাকায় আসেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের এই দুই সদস্যের প্রতিনিধি দল।
প্রসঙ্গত, ঘরের মাঠের বাংলাদেশ কতোটা লড়াকু, তা ভালো করেই জানা অতিথিদের। এ কারণে বাংলাদেশ সফরে সেরা দল পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি রিকি স্কেরিট। কারণ সর্বশেষ সফরে বাংলাদেশের বিপক্ষে মোটেও ভালো পারফর্ম করতে পারেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২-০ ব্যবধানে টেস্ট সিরিজ হারের পর ২-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজও হারে সফরকারীরা। শুধু টি-টোয়েন্টি সিরিজে ২-১ ব্যবধানে জেতে তারা।