চকরিয়ায় ১২ দিন পর যুবকের লাশ উদ্ধার

36

চকরিয়ায় বিয়ের ১২ দিনের মাথায় আবদুল হামিদ (২৫) নামে এক যুবকের ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত আবদুল হামিদ উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বইল্যাপাড়ার মো. দেলোয়ার হোছেনের ছেলে।
গত সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের রামপুর চিংড়ি জোন এলাকার বেড়িবাঁধের পাশ থেকে তার লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহতের শরীরের বিভিন্ন অংশে গুরুতর জখমের চিহ্ন রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
স্থানীয়রা জানান, গত ১২ দিন পূর্বে স্থানীয় এক তরুণীকে তুলে নিয়ে পালিয়ে বিয়ে করেন আবদুল হামিদ। বিয়ের পর তারা বাড়িতেও ফিরেন। প্রেম ও বিয়ে ঘটিত কারণেই এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করছেন স্থানীয়রা।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাবিবুর রহমান বলেন, স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে খবর পেয়ে রামপুর চিংড়িঘের এলাকা থেকে আবদুল হামিদ নামে একব্যক্তিকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে আবদুল হামিদকে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
ওসি আরও বলেন, নিহতের তার শরীরের বিভিন্ন অংশে গুরুতর জখমের চিহ্ন রয়েছে। সুরহতাল রিপোর্ট তৈরি শেষে সোমবার রাতেই নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। কি কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে তার ক্লু উদঘাটনের পাশাপাশি হত্যাকান্ডের সাথে জড়তিদের গ্রেপ্তারে পুলিশ কাজ করছে বলেও জানান তিনি।