চকরিয়ায় স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

26

চকরিয়ায় পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামীর কোদালের আঘাতে খুন হয়েছেন নয়ন মনি (২৮) নামে এক গৃহবধূ। গত মঙ্গলবার বিকাল ৩টার দিকে স্বামী জালাল উদ্দিনের (৩৫) আঘাতে গুরুতর আহত অবস্থায় নয়ন মনিকে প্রথমে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল বুধবার দুপুরে মারা যান তিনি। উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের পরিষদ পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে নিহতের চাচা মোহাম্মদ হোসেন বাদী হয়ে চকরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।এর পরপরই পুলিশ ঘাতক স্বামী জালাল উদ্দিনকে আটক করে। ঘাতক জালাল উদ্দিন ওই এলাকার খুইল্যা মিয়ার ছেলে। দাম্পত্য জীবনে সংসারে সাত বছরের এক ছেলে ও দেড় বছরের এক কন্যা সন্তান রয়েছে।
স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্র জানায়, আট বছর পূর্বে উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের পরিষদ পাড়া এলাকার খুইল্যা মিয়ার ছেলে জালাল উদ্দিনের সাথে বিবাহ হয় পার্শ্ববর্তী পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়নের বাসিন্দা নয়ন মনির। মঙ্গলবার দুপুরে পারিবারিক তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে জালাল উদ্দিন ও তার স্ত্রী নয়ন মনির মধ্যে বাগবিতÐা হয়। এসময় জালাল উদ্দিন শারীরিক নির্যাতনের এক পর্যায়ে কোদাল দিয়ে মাথায় আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন নয়ন মনি। ঘটনার পরপরই স্থানীয় লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় নয়ন মনিকে প্রথমে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে ডাক্তারের পরামর্শে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করে। গতকাল বুধবার দুপুরে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নয়ন মনি।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাবিবুর রহমান বলেন, উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নে গত মঙ্গলবার দুপুরে গৃহবধূ নয়ন মনির উপর শারীরিক নির্যাতনের পর ওইদিন রাতেই নয়ন মনির চাচা মোহাম্মদ হোসেন বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। এর পরপরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে জালাল উদ্দিনকে আটক করে। এ ঘটনায় জড়িত অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। জালাল উদ্দিনকে গতকাল বুধবার সকালে আদালতে সোপর্দ করা হয়।