ঘূর্ণিঝড় কিয়ার : সাত ট্রলারের ৮০ জেলে নিখোঁজ

45

২০০ কিলোমিটার বেগে ভারতের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় কিয়ার। যার জেরে সতর্কতা জারি রয়েছে কর্ণাটক ও গোয়াসহ দেশটির বেশকিছু রাজ্য ও এর আশপাশের এলাকায়। দেশটির আবহাওয়া অফিসের তথ্যমতে, ভয়াল রূপ ধারণ করে যেকোনো মুহূর্তে ভারতের বেশকিছু রাজ্যের উপকূলীয় স্থানে আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড় কিয়ার।
এদিকে মাছ ধরতে আরব সাগরের গভীরে যাওয়া ৬৯২টি ট্রলারের মধ্যে প্রায় সবগুলোই ফিরে এসেছে। তবে এখনও ফিরে আসেনি তামিলনাড়ু রাজ্যের কন্যাকুমারী জেলা থেকে যাওয়া সাতটি ট্রলার। যেখানে রয়েছেন প্রায় ৮০ জন জেলে। রবিবার (২৭ অক্টোবর) এমন তথ্যই জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম।
সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, আরব সাগরে ঘনীভূত নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে। যেটি ধেয়ে আসছে ভারতের দিকে। যার জেরে জেলেদের সাগরে যাওয়ায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের কারণে ইতোমধ্যে সাগরে মাছ ধরতে যাওয়া বেশিরভাগ ট্রলার ফিরে আসলেও সাতটি ট্রলার এখনও ফেরেনি। যেখানে রয়েছেন প্রায় ৮০ জন জেলে। পি ডিকসন নামে এক জেলে জানান, যদি ওই ট্রলারগুলো এক থেকে দু’দিনের মধ্যে না ফেরে এবং আমরাও তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পারি, তাহলে ওই ট্রলারগুলোতে থাকা জেলেদের বেঁচে ফেরার সম্ভাবনা একেবারেই কম।
অন্যদিকে ঘূর্ণিঝড়ে ভারী বর্ষণ হতে পারে বলে ইতোমধ্যে দেশটির কর্ণাটক ও গোয়া রাজ্যসহ এর আশপাশের এলাকায় জরুরি সতর্কতা জারি রয়েছে। পাশাপাশি ওড়িশা, আসাম, মেঘালয়েও ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া বাতাসের গতিও তীব্র বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।
প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কারণে পর্যটকদের আগামী ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত গোয়ায় না যাওয়ার অনুরোধ জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া আগামী ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত মহারাষ্ট্র, গোয়া, কর্ণাটক, গুজরাটসহ বিভিন্ন এলাকার জেলেদের সমুদ্রে যাওয়ায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। বাংলানিউজ