গাউছুল আজম মাইজভাণ্ডারীর রওজায় চড়ানো হলো গিলাপ

24

সৈয়দ এমদাদুল হক মাইজভাণ্ডারী

হযরত গাউছুল আজম সৈয়দ আহমদ উল্লাহ মাইজভাণ্ডারীর (ক.) ১১৭তম বার্ষিক ওরশ উপলক্ষে তাঁর মাজারে গিলাপ চড়ানো হয়েছে। ২৩ জানুয়ারি সকালে রওজায় গিলাপ চড়ান গাউছিয়া আহমদিয়া মঞ্জিলের সাজ্জাদানশীন হযরত মওলানা শাহসুফি সৈয়দ এমদাদুল হক মাইজভাÐারী (ম.) ও নায়েব সাজ্জাদানশীন ও মোন্তাজেম সৈয়দ ইরফানুল হক মাইজভাণ্ডারী (ম.)। এসময় উপস্থিত ছিলেন খান অ্যাগ্রো গ্রæপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দুল হক খান, মাইজভাণ্ডারী ফাউন্ডেশনের কো-চেয়ারম্যান ক্যাপ্টেন সৈয়দ সোহেল হাসনাত ও চট্টগ্রাম চেম্বারের পরিচালক জহিরুল ইসলাম চৌধুরী আলমগীর এবং আওলাদে গাউছুল আজম শাহজাদা সৈয়দ মুহাম্মদ এরহাম হোসাইন ও শাহজাদা সৈয়দ মানাওয়ার হোসাইন। পরে রওজা প্রাঙ্গণে তাওয়াল্লোদে গাউছিয়া, জিকির ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন সাজ্জাদানশীন সৈয়দ এমদাদুল হক মাইজভাণ্ডারী (ম.)।
ডা. সৈয়দ দিদারুল হক মাইজভাণ্ডারী
সোমবার গাউছুল আজম মাইজভাণ্ডারী (ক.) এর রওজা শরীফে গোসল শরীফ ও গিলাফ চড়ানোর ব্যবস্থাসহ বিশেষ মোনাজাত করেন গাউছিয়া আহমদিয়া মঞ্জিলের সাজাদ্দানশীন সৈয়দ ডা. দিদারুল হক মাইজভাÐারী। এসময় নায়েবে সাজ্জাদানশীন সৈয়দ হোসেইন রাইফ নুরুল ইসলাম রুবাব মাইজভাÐারী উপস্থিত ছিলেন।
সৈয়দ আহমদ হোসাইন মাইজভাণ্ডারী
গাউসুল আজম মাইজভাণ্ডারীর পৌত্র অছিয়ে গাউসুল আজম মাইজভাণ্ডারী মনোনীত মোন্তাজেম শাহসুফি সৈয়দ মুনিরুল হক মাইজভাণ্ডারীর স্থলাভিষিক্ত জিম্মাদার আওলাদদ্বয় মোন্তাজেম ও সাজ্জাদানশীনে দরবারে গাউসুল আজম শাহসুফি সৈয়দ আহমদ হোসাইন শাহরিয়ার মাইজভাণ্ডারীও শাহসুফি সৈয়দ সাজ্জাদ হোসাইন সোহেল মাইজভাণ্ডারীর আয়োজনে ওরশ শরীফ উপলক্ষে গতকাল সকাল ১১টায় মিলাদে নববী, তাওয়াল্লোদে গাউছিয়া ও মুনাজাতের মাধ্যমে ২দিনব্যাপী ওরশ শরীফের মূল কার্যক্রম শুরু হয়। পরে আঞ্জুমানে মোত্তাবেয়ীনে গাউছে মাইজভাণ্ডারী প্রকাশনা পরিষদের উদ্যোগে নিয়মিত প্রকাশনা হিসাবে জ্ঞানভাÐার ১০ মাঘ স্মারক সংখ্যার মোড়ক উন্মোচনের মাধ্যমে মাইজভাণ্ডারী দর্শন ও তাসাউফ বিষয়ক প্রকাশনার আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়।
শাহ্সুফি সৈয়দ মোহাম্মদ হাসান মাইজভাণ্ডারী (ম.)
বাংলাদেশে প্রবর্তিত একমাত্র ত্বরিকা, বিশ্বসমাদৃত ত্বরিকা-ই-মাইজভাÐারীয়ার প্রবর্তক গাউসুল আযম হযরত মাওলানা শাহ্সূফি সৈয়দ আহমদ উল্লাহ্ মাইজভাÐারী (ক.)-এর ১১৭তম উরস্ শরিফ আজ ২৪ জানুয়ারি মঙ্গলবার মাইজভাÐার শরিফ ‘দরবার-ই গাউসুল আযম মাইজভাÐারী’র গাউসিয়া হক মন্জিলে মহাসমারোহে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে উদযাপিত হচ্ছে। গতকাল বা’দ মাগরিব রওজা শরিফ গোসল ও গিলাফ চড়ানোর মাধ্যমে উরস্ শরিফের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। রাত দশটায় কেন্দ্রিয় মিলাদ মাহ্ফিল ও আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন গাউসুল আযম মাইজভাÐারী’র প্র-প্রপৌত্র, গাউসিয়া হক মন্জিলের সাজ্জাদানশীন, আওলাদে রাসূল হযরত আল্লামা শাহ্সুফি সৈয়দ মোহাম্মদ হাসান মাইজভাÐারী (ম.)। উরস্ শরিফ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে উরস এন্তেজামিয়া কমিটি সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে।
এম. মনজুর আলম এর কর্মসূচি
ইমামুল আউলিয়া হযরত গাউছুল আজম মাইজভাÐারী সৈয়দ আহমদ উল্লাহ (ক.) এর ১১৭তম ওরশ শরীফ উপলক্ষে আশেকানে মাইজভাÐারী সাবেক মেয়র এম. মনজুর আলম মাইজভাÐার দরবার শরীফ জিয়ারত, ফাতেহা পাঠ সহ নানা ধর্মীয় কার্যক্রম পরিচালনা করেন। তাঁর অর্থায়নে প্রতিষ্ঠিত মসজিদে দোয়া মাহফিল, শাহী ডেকে তবারুক তৈরি করে বিতরণ এবং নজরে নেওয়াজ হিসেবে গবাদি পশু জবাই করে আশেকভক্তদের মাঝে বিতরণ সহ নানা ধরনের সেবা কার্যক্রম পরিচালনা করেন। এম. মনজুর আলম মাইজভাÐার শরীফে আগত আশেকান ভক্তদের সুবিধার্থে রাস্তায় আলোবাতির ব্যবস্থা, দাতব্য চিকিৎসালয় পরিচালনা, বিশ্রামাগার ও গণশৌচাগার প্রতিষ্ঠা, পবিত্র মসজিদ নির্মাণ, গেইট নির্মাণ, মিনার নির্মাণ সহ ২৫০ মন ধারণক্ষমতার শাহী ডেক স্থাপন, অক্সিজেন মোড়ে গাউছুল আজম মাইজভাÐার চত্ত¡র স্থাপন করে সেবা কার্যক্রমে অবদান রেখে যাচ্ছেন। তাঁর পিতা হযরত আবদুল হাকিম মাইজভাÐারী (র.) ছিলেন অলি-আউলিয়াদের খাদেম ও দরবারে মুসাবীয়ার মুরিদ। বিজ্ঞপ্তি