গাইনী ওয়ার্ডের এসি চুরি করে নিয়ে যাচ্ছিল তারা

7

নিজস্ব প্রতিবেদক

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল থেকে তিনটি নতুন এসি চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় হাসপাতালের দুইজনকে হাতেনাতে আটক করেছে পুলিশ। তাদের মধ্যে হাসপাতালের এক কর্মচারীও রয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে হাসপাতালের ৩৩ নম্বর গাইনি ওয়ার্ড থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলো নূর হোসেন ও মিলন। তাদের মধ্যে নুর হোসেন হাসপাতালের স্থায়ী কর্মচারী হলেও মিলন বহিরাগত বলে জানা গেছে।
এসি চুরির বিষয়টি স্বীকার করে চমেক হাসপাতালে পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম আহসান বলেন, ‘চুরির ঘটনায় গাইনি ওয়ার্ড থেকে দুইজনকে আটক করা হয়েছে বলে শুনেছি। বর্তমানে আমি ঢাকায় অবস্থান করছি। আটক দুইজনের মধ্যে একজন হাসপাতালের কর্মচারী। সরকারি কোনো সম্পত্তি চাইলে কেউ নিয়ে যেতে পারে না। সরকারি সম্পত্তি চুরির অপরাধে পুলিশ প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে’।
তবে, এসি চুরির বিষয়টি ধামাচাপা দিতে পুলিশ প্রশাসনকে ম্যানেজ করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হাসপাতালের এক কর্মকর্তা বলেন, কেউ অপরাধ করলে তাকে শাস্তির আওতায় আনা উচিত। সরকারি সম্পত্তি চুরি করে নিয়ে যাওয়া অপরাধ। চুরির ঘটনা ধামাচাপা দিতে পুলিশ প্রশাসনকে ম্যানেজ করার চেষ্টা করা হচ্ছে।