খুটাখালীতে টমটমের ব্যাটারি লুটের ঘটনায় ৩ আসামি জেলে

5

ঈদগাঁও প্রতিনিধি

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী গ্রামীণ ব্যাংক রাস্তা নামক এলাকায় টমটম গ্যারেজের ১৩টি গাড়ির ৫৬টি ব্যাটারি লুটের ঘটনায় অভিযুক্ত তিন জনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। গত ১৩ জানুয়ারি চকরিয়া সিনিয়র ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক এ নির্দেশ দেন। অভিযুক্তরা হলেন- উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড ফরেষ্ট অফিসপাড়া গ্রামের আবদু ছালামের পুত্র মো. আবদুল্লাহ (২৫), একই গ্রামের মো. হোছন প্রকাশ কালা বদার পুত্র নজরুল ইসলাম প্রকাশ ডিমারিয়া (২২) ও তার ভগ্নিপতি নুরুল ইসলাম (৪৯)। সূত্রে জানা যায়, উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের ছড়িবিল গ্রামের মৃত আবদুল কাদেরের পুত্র মো. গিয়াস উদ্দীন বিগত ১ বছর ধরে মহাসড়কের লাগোয়া গ্রামীন ব্যাংক রাস্তা নামক এলাকায় টমটম গাড়ির গ্যারেজে বৈধভাবে চার্জ দিয়ে ব্যবসা করে আসছিল। ঘটনার দিন গত ৫ জানুয়ারি রাতে তিনি ৩০টি গাড়ি চার্জে লাগিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। এ সুযোগে অভিযুক্তদের যোগসাজশে সংঘবদ্ধ চুরের দল সিদ কেটে ভিতরে প্রবেশ করে তার হাত, পা, মুখ ও চোখ বেঁধে ১৩টি গাড়ির ৫৬টি ব্যাটারি লুট করে প্রায় সাড়ে ৫ লাখ টাকার ক্ষতিসাধন করে। এ ঘটনায় টমটম গ্যারেজের মালিক গিয়াস উদ্দীন বাদি হয়ে গত ১০ জানুয়ারি চিহ্নিত ৩ জনকে আসামি করে চকরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় গত ১৩ জানুয়ারি আসামিরা জামিন নিতে গেলে আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এ বিষয়ে টমটম গ্যারেজের মালিক গিয়াস উদ্দীন বলেন, গ্রামীন ব্যাংক রাস্তা নামক এলাকায় লাখ টাকা ব্যয়ে একটি টমটম গাড়ির চার্জের গ্যারেজ স্থাপন করি। এতে চুরের দল হানা দিয়ে আমার সাড়ে ৫ লাখ টাকার ক্ষতি সাধন করে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করলে আদালত তাদের জেল হাজতে পাঠিয়েছেন। আশা করি হারানো মালামাল উদ্ধার ও দোষিদের উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।