কড়লডেঙ্গা বৈদ্যানী সড়ক যেন মরণ ফাঁদ

9

মরণ ফাঁদের সৃষ্টি হয়েছে কড়লডেঙ্গার বৈদ্যানী সড়কে। অসংখ্য গর্ত পার হয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলছে এ সড়ক দিয়ে যানবাহন। বোয়ালখালী উপজেলার কড়লডেঙ্গা ইউনিয়নের গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কটি বৈদ্যানি খালের ভাঙনে এ দশার সৃষ্টি হয়েছে। এ সড়ক দিয়ে চন্ডীতীর্থ মেধস আশ্রম ও ঐতিহ্যবাহী বু-আলী কালন্দর শাহ’র (রহ.) মাজার যাতায়াত করেন পূর্ণ্যার্থী এবং দর্শনার্থীরা। প্রায় ৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের সড়কটির ১ কিলোমিটার কার্পেটিং ও বাকি ৪ কিলোমিটার ইটের। দীর্ঘদিন সড়কটি সংস্কার না হওয়ায় সৃষ্টি হয়েছে বড় গর্ত। ফলে চরম ভোগান্তির পোহাচ্ছেন এলাকাবাসীসহ দূরদূরান্ত থেকে আসা যাত্রী সাধারণ। সরজমিনে দেখা যায়, উপজেলার করলডেঙ্গা ইউনিয়নের ভুবন বিশ্বাসের পোল থেকে বু-আলী কালন্দর শাহ মাজার গেইট পর্যন্ত বৈদ্যানী সড়কটির পুরো অংশে ছোট-বড় গর্ত। এ সড়ক দিয়ে প্রতিদিন শত শিক্ষার্থী স্থানীয় কানুনগোপাড়া স্যার আশুতোষ সরকারি কলেজ, পিসি সেন সারোয়াতলী উচ্চ বিদ্যালয়, এফ আর নুরুল হক উচ্চ বিদ্যালয়সহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যাতায়াত করে। পূর্বাঞ্চলের জনগুরুত্বপূর্ণ এ সড়কটি দিয়ে নগরীর সাথে যাতায়াতের অন্যতম সড়ক হলেও চরম অবহেলিত রয়ে গেছে। বিশেষ করে পূর্বাঞ্চল থেকে কোন রোগী এ সড়ক দিয়ে আসার সময় রোগীর অবস্থা আরো শোচনীয় হয়ে পড়ে। কড়লডেঙ্গা পাহাড়ে লেবু, আদা, হলুদসহ উৎপাদিত বিভিন্ন ফসল এ সড়ক দিয়ে চট্টগ্রামে পাইকারী বাজারে নিয়ে আসা হয়। এছাড়াও নগরীর থেকে আড়তদাররা পাহাড়ে উৎপাদিত বিভিন্ন পণ্য ক্রয়ের জন্য পাহাড়ের পাদদেশে স্থানীয় বাজারে যাওয়ার জন্য এ সড়কটি ব্যবহার করেন। বেহাল দশা এ সড়কটির জন্য কোন পণ্যবাহী গাড়ি পরিবহনে রাজী হয় না। কোন যানবাহন পণ্য বহনে রাজী হলেও অতিরিক্ত ভাড়া গুণে এসব মালামাল নগরীসহ স্থানীয় বিভিন্ন বাজারে আনতে হয়। এতে খরচ বেড়ে যাওয়ার ফলে পণ্যের দামও বেড়ে যায়। এক সময় এ সড়ক দিয়ে কানুনগোপাড়া দাশের দিঘী পাড় হয়ে নগরীর বহদ্দার হাট বাস স্টেশনে যাতায়াত করত কানুনগোপাড়া বাস সার্ভিস। এ এলাকার বাসিন্দা মৃদুল দাশ (৭৫), আবদুল সত্তার (৪৮), মো. শফী (২৮), অনিল দে (৫৬) ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, দীর্ঘদিন আগে সড়কটির সংস্কার করেছিলেন। এ যাবৎ সড়কটিতে উল্লেখ্যযোগ্য কোন সংস্কার কাজ হয়নি। করলডেঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হামিদুল হক মান্নান বলেন, এলাকার উন্নয়ন ও পাহাড়ে উৎপাদিত পণ্য সামগ্রী সাশ্রয়ে পরিবহনের জন্য জনগুরুত্বপূর্ণ এ সড়কটি সংস্কার করা খুবই জরুরী। এমপি মহোদয় এ সড়ক সংস্কারে আন্তরিক। সওজের নির্বাহী প্রকৌশলী সুমন সিংহ জানান, বৈদ্যানী সড়কটি সংস্কারের বিষয়ে প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। প্রকল্পের অর্থ বরাদ্দ আসলে সংস্কার কাজ শুরু করা হবে।