ক্যাডেটদের আত্মপ্রত্যয় দেশের জন্য কল্যাণ বয়ে আনবে

10

বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর (বিএনসিসি) মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মিজানুর রহমান (এনডিসি, পিএসসি) বলেছেন, ‘ক্যাডেটবৃন্দ, তোমরা তরুণ। তোমাদের তারুণ্যদৃপ্ত আত্মপ্রত্যয় ও ত্যাগ অবশ্যই দেশের জন্য কল্যাণ বয়ে আনবে। তোমরাই এ দেশের আগামী দিনের কান্ডারী। তোমাদের উপর রয়েছে দেশের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করার মহান দায়িত্ব। আর তোমরা সকলেই এ দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করার জন্য নিজেদের শারীরিক ও মানসিকভাবে প্রস্তুত রাখবে।’ গতকাল বুধবার সকালে চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ ক্যাম্পাস সংলগ্ন প্যারেড মাঠে বিএনসিসি কর্ণফুলী রেজিমেন্টের ‘রেজিমেন্ট ক্যাম্পিং ২০২৩-২০২৪’ এর সমাপনী কুচকাওয়াজ শেষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি (ডিজি) এসব কথা বলেন।
এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘প্রিয় ক্যাডেটরা জ্ঞান, শৃংখলা ও স্বেচ্ছাসেবা এ তিনটি মূলমন্ত্রে গঠিত বিএনসিসি কর্ণফুলী রেজিমেন্টের প্রায় ৪ হাজার ১০ জন ক্যাডেট সদস্য সদা সর্বদা মাতৃকার প্রয়োজনে শান্তিকালীন ও যুদ্ধকালীন সময়ে দ্বিতীয় সারির প্রতিরক্ষা বাহিনী ও স্বেচ্ছাসেবার দায়িত্ব পালন করে আসছে। বর্তমানে এ সংগঠনটি সামরিক প্রশিক্ষণের পাশাপাশি সেনাবাহিনীতে অফিসার পদে কমিশন লাভ, সৈনিক পদে ভর্তি, যুব বিনিময় কর্মসূচির আওতায় সার্কভুক্ত দেশ সফর, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায় বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ যেমন-যুব উন্নয়ন র‌্যালি, ট্রাফিক সপ্তাহ পালন, বৃক্ষরোপণ, দুর্নীতিবিরোধী র‌্যালি, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম এবং বিভিন্ন সমাজ সচেতনতামূলক র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করছে।’
কুচকাওয়াজ চলাকালে উপস্থিত ছিলেন কর্ণফুলী রেজিমেন্ট এর রেজিমেন্ট কমান্ডার লে. কর্নেল রাহাত নেওয়াজ-পিএসসি, ব্যাটালিয়ন এ্যাডজুটেন্ট মেজর মো. রফিকুল হাসান রাফি, রেজিমেন্ট এ্যাডজুটেন্ট লে. বিএন তানজীম জামান তাঈন এবং বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধানসহ বিএনসিসিও, পিইউও, টিইউও, রেজিমেন্টের সামরিক প্রশিক্ষক, অসামরিক কর্মচারী এবং ক্যাডেটবৃন্দ।
প্রসঙ্গত, প্রতি বছরের ন্যায় এবারও বর্ষব্যাপী প্রশিক্ষণ সমাপনান্তে গত ২৩ জানুয়ারি হতে আগামী ১ ফেব্রæয়ারি পর্যন্ত চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ ক্যাম্পাসে কর্ণফুলী রেজিমেন্টের রেজিমেন্ট ক্যাম্পিং ২০২৩-২০২৪ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। উক্ত ক্যাম্পিং এ চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি এবং বান্দরবান জেলার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ ও স্কুল হতে প্রায় ৫০০ পুরুষ ও মহিলা বিএনসিসি ক্যাডেট অংশগ্রহণ করছে।
উক্ত ক্যাম্পে গত ১০ দিনব্যাপী এ প্রশিক্ষণকালে সামরিক প্রশিক্ষণের পাশাপাশি ক্ষুদ্রাস্ত্র ফায়ারিং, ছদ্মবেশ ও গোপনীয়তা, ড্রিল, রেইড, এ্যাম্বুস, খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছে। তাছাড়া মনো-দৈহিক গুণাবলী বিকাশ ও সমাজ সেবামূলক কাজে অনুপ্রাণিত করার লক্ষ্যে ক্যাম্পে বিভিন্ন ক্লাশ পরিচালনা করা হয়েছে। ফলে ক্যাম্পের লব্দ জ্ঞান ধারণ করে ক্যাডেটরা নিজের জীবন, সমাজ ও দেশ গঠন করার কাজে অবদান রাখবে।
এর আগে বিএনসিসি ডিজি ক্যাম্পস্থলে আসলে রেজিমেন্টের একদল চৌকস ক্যাডেট তাকে ‘গার্ড অফ অনার’ প্রদান করেন। এরপর কুচকাওয়াজ শেষে তিনি ক্যাডেটদের পরিবেশনায় এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে তিনি ক্যাম্প চলাকালে বিভিন্ন ইভেন্টে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। পরে ক্যাডেটদের স্বহস্তে অঙ্কিত দেয়ালে ক্ষচিত বিভিন্ন প্রামান্য চিত্র পরিদর্শন এবং আমিই বঙ্গবন্ধুর উপর একটি চিত্রনাট্য অবলোকন করেন। খবর বিজ্ঞপ্তির