কোভিড টিকার চতুর্থ ডোজ শুরু ২০ ডিসেম্বর

7

পূর্বদেশ ডেস্ক

আগের ঘোষণা অনুযায়ী করোনাভাইরাসের টিকার চতুর্থ ডোজ আগামী ২০ ডিসেম্বর থেকে দেওয়া শুরু হচ্ছে; প্রথম পর্যায়ে এটি পাবেন ষাটোর্ধ্ব ও দীর্ঘমেয়াদী রোগে ভোগা ব্যক্তিদের পাশাপাশি সম্মুখ যোদ্ধারা। বুস্টার ডোজ নেওয়ার চার মাস পেরিয়েছে এমন ব্যক্তিদের চতুর্থ ডোজ দেওয়া হবে।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, ৬০ বছর বা এর বেশি বয়সী জনগোষ্ঠী, দীর্ঘমেয়াদী রোগে আক্রান্ত ১৮ বছর বা এর বেশি বয়সী জনগোষ্ঠী, স্বল্প রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাসম্পন্ন জনগোষ্ঠী,গর্ভবতী ও দুগ্ধদানকারী মা এবং সম্মুখসারির যোদ্ধারা এ টিকা পাবেন। খবর বিডিনিউজের
শুরুতে পরীক্ষামূলকভাবে নির্দিষ্ট কয়েকটি স্থানে চতুর্থ ডোজ দেওয়ার কার্যক্রম চালুর কথা থাকলেও এখন দেশজুড়েই তা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন কোভিড ১৯ ভ্যাকসিন ব্যবস্থাপনা টাস্কফোর্স কমিটির সদস্য সচিব ডা. মো. শামসুল হক। গতকাল বৃহস্পতিবার তিনি জানান, চতুর্থ ডোজ হিসেবে ফাইজার-বায়োএনটেকের তৈরি করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়া হবে। তিনি বলেন, ঢাকার সাতটি হাসপাতালে পরীক্ষামূলক টিকা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ফাইজার যেহেতু নতুন টিকা নয়, এটা আগেই দেওয়া হচ্ছে। এক্ষেত্রে আর ট্রায়ালের প্রয়োজন নেই। আমরা একসঙ্গে হয়তো সবগুলো কেন্দ্রে কাজ শুরু করতে পারব না। প্রাথমিকভাবে আমরা শুরু করব। আস্তে আস্তে তা বাড়ানো হবে।
এর আগে গত ৬ ডিসেম্বর স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবীর ২০ ডিসেম্বর থেকে ঢাকার সাতটি কেন্দ্রে ‘পরীক্ষামূলকভাবে’ কোভিডের টিকার চতুর্থ ডোজ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন।