কাট্টলীতে উপকূলীয় জলদাস ফেডারেশনের মতবিনিময়

37

কোন প্রকার হীনমন্যতা নিয়ে নয়, মানুষ হিসেবে মেরুদন্ড সোজা করে নিজেদের স্বার্থ ও অধিকার রক্ষার ন্যায়সংগত সংগ্রামকে এগিয়ে নেয়ার জন্যে জলদাস সম্প্রদায়ের প্রতি উদাত্ত আহব্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রানা দাশগুপ্ত। গত ১৪ আগস্ট বুধবার দক্ষিণ কাট্টলীর জেলেপাড়ায় উত্তর চট্টলা উপকূলীয় জলদাস ফেডারেশনের আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় তিনি প্রধান অতিথির ভাষণ দিচ্ছিলেন। এতে সভাপতিত্ব করেন ফেডারেশনের সভাপতি লিটন দাস। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নিতাই প্রসাদ ঘোষ, সংগঠনের সহ-সম্পাদক বিশ্বজিৎ পালিত, পাহাড়তলী থানা শাখার সভাপতি সুকান্ত দত্ত, মহিলা ঐক্য পরিষদের সহ সভানেত্রী মিনু রানী দেবী। ফেডারেশনের পক্ষে বক্তব্য রাখেন পরিমল দাশ, সমীরণ দাশ, বাসেল দাশ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। এডভোকেট দাশগুপ্ত শিক্ষার উপর জোর গুরুত্ব আরোপ করে বলেন, এতে সমাজে সচেতনতা আনবে। পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী ক্রমশ:ই সামনের কাতারে এগিয়ে আসবে। তিনি সমাজের ঐক্যবদ্ধতার উপর জোর গুরুত্ব আরোপ করে বলেন, শক্তিশালী জনগোষ্ঠী-ই সকল প্রকার লোভ-লালসার উর্দ্ধে থেকে ভয়-ভীতি-প্রলোভনকে উপেক্ষা করে নিজ স্বার্থ ও অধিকার রক্ষায় এগিয়ে যেতে পারে এবং এতে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম প্রকৃত মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে পারে। এড. দাশগুপ্ত নিজ সম্প্রদায়ের স্বার্থ রক্ষার পাশাপাশি ঐক্য পরিষদের নেতৃত্বে পরিচালিত ধর্মীয় বৈষম্যবিরোধী মানবাধিকার আন্দোলনকেও এগিয়ে নেয়ার জন্যে জলদাস সম্প্রদায়ের প্রতি আহব্বান জানান। তিনি বলেন, জনপ্রতিনিধিরা জনগনের সেবক। কিন্তু দুর্ভাগ্যপীড়িত জনগণ তা উলবদ্ধি করতে না পারলে এর খেসারত জনপ্রতিনিধিদেরকেই দিতে হবে। এর জন্যে জনগণ দায়ী থাকবে না। বিজ্ঞপ্তি