কাউখালীতে ইটভাটা থেকে তিন শ্রমিককে অপহরণ

9

রাঙামাটি প্রতিনিধি

রাঙামাটির জেলার কাউখালী উপজেলার তারাবুনিয়া খাজা গরীবে নেওয়াজ ইটভাটা থেকে তিন শ্রমিককে অপহরণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরগত রাত আনুমানিক ২ টার দিকে তাদের অপহরণ করা হয় বলে জানা গেছে।
জানা গেছে, ওই দিন ভোর রাতে একদল অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী ব্রিক ফিল্ডে ঢুকে তিন শ্রমিককে অপহরণ করে নিয়ে যায়। সূত্রে জানা যায়, কাউখালী উপজেলার ৪নং কলমপতি ইউনিয়নের প্রত্যন্ত দূর্গম এলাকা তারাবুনিয়া ‘খাজা গরীবে নেওয়াজ’ নামে ইটভাটা থেকে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) নামের একটি সংগঠন তাদের নির্ধারিত বাৎসরিক চাঁদা না দেওয়ার কারণে গতকাল বৃহস্পতিবার ৩ শ্রমিককে অস্ত্রের মুখে ইটভাটা থেকে তুলে নিয়ে যায়।
অপহৃতরা হলেন মো. জিয়াউর রহমান (২৮), আহসান উল্লাহ (২৮) ও মো. মোসলিম (৪০)। জিয়াউর রহমানের বাড়ি চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার দক্ষিণ পাহাড়তলীর ফতেয়াবাদ এলাকায়। আহসান উল্লাহর বাড়ি নোয়াখালী। তবে মো. মোসলিমের ঠিকানা জানা যায়নি।
খাজা গরীবে নেওয়াজ ইটভাটার মালিক মো. ফারুক মুঠোফোনে জানান, বৃহস্পতিবার ভোররাত আনুমানিক ২ টার দিকে একদল মুখোশধারী সন্ত্রাসী অস্ত্রের মুখে তার ব্রিক ফিল্ড থেকে ৩ শ্রমিককে তুলে নিয়ে গেছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা ১৫ মিনিটের সময় রবি নাম্বার থেকে একটি কল আসে। ওই কল থেকে ৩০ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন। পরে আমি ওই নাম্বারে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে নাম্বারটি বন্ধ পাওয়া যায়। পরে অপহৃত একজনের মোবাইল থেকে সন্ত্রাসীরা ফোন করে বলেন বৃহস্পতিবার দুপুর ১ টার মধ্যে ৩০ লক্ষ টাকা না দিলে অপহৃত তিন শ্রমিককে মেরে ফেলা হবে। এরপর আর সন্ত্রাসীরা কোনো প্রকার যোগাযোগ করেনি। তবে এঘটনা ঘটিয়েছে ইউপিডিএফ সন্ত্রাসীরা- এমন তথ্য জানান তিনি।
কাউখালী থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) মো. পারভেজ আলী মুঠোফোনে বলেন, এধরনের খবর আমরা শুনেছি। তবে এব্যাপারে ব্রিকফিল্ড কর্তৃপক্ষ এখনো আমাদের কাছে অভিযোগ করতে আসেনি। অবিযোগ পেলে আমরা আইনগত পদক্ষেপ নিবো। তবে ঘটনার তথ্য জানার পর থেকে আমরা কাজ করছি।