কর্ণফুলীতে ঘরে ঢুকে বিধবাকে কুপিয়ে জখম

3

কর্ণফুলী প্রতিনিধি

কর্ণফুলীর শাহমীরপুরে ঘরে ঢুকে মমতাজ বেগম (৭০) নামের এক বিধবাকে কুপিয়েছে প্রতিপক্ষ। একটি বিরোধীয় জমিতে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে আদালত নিষেধাজ্ঞা দেয়ায় ক্ষুব্দ হয়ে তারা এ হামলা চালায়। বড়উঠান ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডস্থ বড় মিয়ার বাড়ি এলাকায় গত শুক্রবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে কর্ণফুলী থানার এসআই সিরাজের নেতৃত্বে একদল পুলিশ রক্ষাক্ত অবস্থায় উক্ত বিধবাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করেন। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ওই ঘটনায় প্রতিপক্ষ এনামুল হক প্রকাশ কালা হাজীসহ কয়েকজনকে আসামি করা হয়েছে।
জানা গেছে, ফকিরনীরহাট এলাকায় রাস্তার পশ্চিম পাশে একটি জমি নিয়ে বিধবা নারীর পক্ষে পটিয়া ২য় জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করা হয়। ওই মামলায় আদালত কয়েকদিন আগে নিষেধাজ্ঞার আদেশ দেন।
বিধবা নারীর ভাই মোহাম্মদ ইকবাল জানান, আদালতের আদেশে ক্ষুব্দ হয়ে প্রতিপক্ষের লোকজন ঘরে এসে তার বোনকে কুপিয়ে জখম করে। পরে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে তিনি চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় গতকাল রবিবার দুপুরে বিরোধীয় জমি দখলের চেষ্টা চালায়। এ সময় সংবাদ পেয়ে কর্ণফুলী থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদের ধাওয়া করে।
কর্ণফুলী থানার এসআই মোহাম্মদ তাজু জানান, প্রতিপক্ষ আইন কানুন কিছুই মানে না। তাদেরকে আদালতে যাওয়ার জন্য বলার পরও তারা জমি দখলের জন্য একের পর এক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।
কর্ণফুলী থানার ওসি দুলাল মাহমুদ জানান, বিরোধীয় জমিতে এনামুল হক পক্ষের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আছে। তাতে ক্ষুব্দ হয়ে গত শুক্রবার সকালে এক নারীকে মারধর করা হয়েছে। গতকাল রবিবার জমি দখল করতে গেছে। খবর পেয়ে পুলিশ প্রেরণ করা হলে তারা জমি দখলে ব্যর্থ হয়। ভবিষ্যতে আদালতের নির্দেশনা ছাড়া জমি দখলে চেষ্টা না করার জন্য তাদের সতর্ক করা হয়েছে।
প্রতিপক্ষ এনামুল হকের মোবাইল ফোনে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি কোন কথা বলেননি। তার কন্যা নিশাত জানান, তার পিতা এ বিষয়ে কথা বলতে পারবেন না।