কমলাপুরের টার্ফ নিয়ে অসন্তুষ্ট মালয়েশিয়া

3

স্পোর্টস ডেস্ক

মালয়েশিয়ার বিপক্ষে দুটি ফিফা প্রীতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। শক্তিমত্তায় অনেক এগিয়ে থাকা সফরকারী দলের বিপক্ষে আজ সন্ধ্যা ৬ টায় মাঠে নামার আগে সাফল্যের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী সাবিনা-মারিয়ারা।
র‌্যাংকিংয়ে মালয়েশিয়ার অবস্থান ৮৫; বাংলাদেশের ১৪৬। তবে এসব নিয়ে ভাবছেন না বাংলাদেশের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন। মালয়েশিয়ার বিপক্ষে আত্মবিশ্বাসী ফুটবলই উপহার দিতে চান তিনি। একই সুর বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুনের কণ্ঠেও।
মালয়েশিয়ার বিপক্ষে খেলার জন্য লম্বা সময় ধরেই অনুশীলন চলছে বলে জানিয়েছেন ছোটন। তিনি বলেন, ‘আমরা রোজার ঈদেরর পর থেকেই ক্যাম্প শুরু করেছি। ডিসেম্বরে সাফ অনুর্ধ্ব-১৯ চ্যাম্পিয়ন দল এবং ভারতের জামশেদপুরে খেলা অনূর্ধ্ব-১৮ দলের খেলোয়াড়রা রয়েছেন দলে। এছাড়া সিনিয়র প্লেয়াররা তো আছেনই।’ তারুণ্য এবং অভিজ্ঞতার মিশেলে দল গড়ে ভালো ফলের বিষয়ে আশাবাদী ছোটন।
নিজেদের উন্নতির জন্যেই আর্ন্তজাতিক ম্যাচ খেলা প্রয়োজন বলে মনে করেন বাংলাদেশের কোচ, ‘আমরা বর্তমানে যে অবস্থায় আছি তাতে নিজেদের উন্নতির জন্যেই আরও বেশি আর্ন্তজাতিক ম্যাচ খেলা প্রয়োজন।
ভালো ফলের বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ নারী ফুটবল দলের অধিনায়ক সাবিনাও। তিনি বলেন, ‘আমরা আমাদের সেরাটা দেয়ার চেস্টা করবো। আমরা নিজেদের খেলার বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী।’
এদিকে ম্যাচ ভেন্যু কমলাপুরের টার্ফে খেলে সন্তুষ্ট নন সফরকারী দলের কোচ জ্যাকব জোসেফ।
গতকাল ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে টার্ফ নিয়ে নিজের অসন্তোষ প্রকাশ করেন জোসেফ। তিনি বলেন, ‘সত্যি বলতে এই টার্ফে খেলাটা একটু কঠিন। মাঠ একটু বেশিই শক্ত। এখানে খেললে খেলোয়াড়দের ইনজুরির শঙ্কা রয়েছে। আমরা এখানে অনুশীলন করেছি।’
তবে মাঠ যেমনই হোক জয়ের বিষয়ে আশাবাদী জোসেফ। বাংলাদেশকে নিয়ে সতর্ক মালয়েশিয়া দলের অধিনায়ক স্টেফি সাজে কউর। তিনি বলেন, ‘প্রতিপক্ষকে হালকাভাবে নেওয়ার কোনও সুযোগ নেই। আমরা আমাদের সেরাটা খেলবো।’