এমপি জাফরকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি

44

কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের সংসদ সদস্য জাফর আলমকে চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির পদ থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে স্থায়ী অব্যাহতির জন্য কেন্দ্রে সুপারিশপত্র পাঠিয়েছে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ। ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সিনিয়র সহ-সভাপতি সরওয়ার আলমকে। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের জরুরি সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম। জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান সঞ্চালনায় জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বারবার দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ, আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলমগীর চৌধুরী ও পৌরসভা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরীকে মারধর, ছাত্রলীগের সভাপতিকে হেনস্তাসহ বিভিন্ন অভিযোগ আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রেজাউল করিম।
এদিকে জেলা আওয়ামী লীগ গত বুধবার রাতে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতির পদ থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেয়া হয় জাহেদুল ইসলাম লিটুকে। তার স্থলে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে অধ্যাপক মোসলেহ উদ্দিন মানিককে। অপরদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জেলা যুবলীগ কেন্দ্রীয় নির্দেশনায় জরুরি সভায় চকরিয়ার যুবলীগ নেতা হাসানুল ইসলাম আদরকে ডুলাহাজারা ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-সম্পাদকের পদ থেকে বহিষ্কার করেছে।
স্থানীয়রা জানান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির পদ থেকে এমপি জাফরকে অব্যাহতি দেয়ার খবর জানাজানি হলে রাত সাড়ে ৯টা থেকে চকরিয়া থানা রাস্তার মাথা ও সিস্টেম কমপ্লেক্সের সামনে মহাসড়কে টায়ারে আগুন দিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন শুরু করেছে জাফর আলম এমপির সমর্থকরা। সড়কের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। নিকটস্থ দোকানসহ সব ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে সরে পড়েছে ব্যবসায়ীরা। এ নিয়ে চকরিয়া পৌর শহরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। বড় ধরনের সংঘাতের আশংকা দেখা দিয়েছে।