এবার পাগলির সন্তান দত্তক নিয়ে আলোচনায় বদি

3

কক্সবাজার প্রতিনিধি

উখিয়া-টেকনাফের সাবেক সাংসদ আবদুর রহমান বদি আবারও খবরের শিরোনাম হয়েছেন। একের পর এক বিতর্কিত ঘটনার জন্ম দিয়ে বছরের পর বছর খবরের শিরোনাম হলেও এবার শিরোনাম হয়েছেন মহানুভবতার জন্য। মানবিকতার এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত দেখালেন তিনি এবং তাঁর স্ত্রী শাহিন আক্তার এমপি। টেকনাফে সদ্যজাত পাগলীর এক কন্যা শিশুকে নিজের মেয়ে হিসেবে দত্তক নিয়েছেন তারা।
ইতোমধ্যে সাবেক সাংসদ বদিকে পিতা এবং বর্তমান সাংসদ শাহিন আক্তারকে মাতা উল্লেখ করে টেকনাফ পৌর এলাকার ৭নং ওয়ার্ডের নাগরিক হিসেবে দত্তক নেওয়া শিশুটির জন্ম নিবন্ধন সম্পাদন করা হয়েছে। শিশুর নাম রাখা হয়েছে মরিয়ম জারা। গত রবিবার (২৫ অক্টোবর) বদির একমাত্র ছেলে শাওন আরমান তার ফেসবুকে বোন পেয়েছেন বলে শুকরিয়ার আদায় করেন। এতে স্থানীয়রা বলছেন, পিতার মত মানবিকতায় তরুণ ছাত্রনেতা শাওন বিষয়টিকে ইতিবাচক হিসেবে নিয়েছেন বলেই দত্তক নেওয়া শিশুটিকে নিজের বোন হিসেবে অকপটে স্বীকৃতি দিলেন।
ফুটফুটে অসহায় শিশুটিকে কেউ বাবার স্বীকৃতি না দিলেও আব্দুর রহমান বদি ও তাঁর স্ত্রী শাহিন আক্তার বাবা-মায়ের স্বীকৃতি দান করায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশংসায় ভাসছেন তারা। এতে করে নিষ্পাপ শিশুটি যোগ্য পিতা-মাতা পেলেন বলে ফেসবুকে মন্তব্য করেছেন অনেকে।
তবে এ ঘটনার পর অনেকেই আবদুর রহমান বদিকে পিতা দাবি করা মোহাম্মদ ইসহাকের বিষয়টি সামনে নিয়ে এসেছেন। তাদের মতে, ইসহাকের বিষয়টি ঝুলিয়ে রেখে সস্তা জনপ্রিয়তার আশায় বদি দম্পতি পাগলির সন্তান দত্তক নিয়েছেন।