এবারের বিশ্বকাপে থাকছে না উদ্বোধনী অনুষ্ঠান!

11

স্পোর্টস ডেস্ক

আগামীকালই অর্থাৎ মাত্র একদিন পরেই পর্দা উঠছে আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের ১৩তম আসরের। বিশ্বকাপে মাঠের লড়াই শুরুর আগে প্রত্যেক আসরেই জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। তবে এবার হয়তো ঘটতে যাচ্ছে এর ব্যতিক্রম। আগামীকাল ৫ অক্টোবর মাঠে গড়াবে এবারের আসর। আর ৪ অক্টোবর বিশ্বকাপের ক্যাপ্টেন্স ডে এবং উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আয়োজনের কথা রয়েছে। তবে ক্রিকেটপ্রেমীদের দুঃসংবাদ দিচ্ছে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো। তাদের দাবি, টেকনিক্যাল কারণে এবারের আসরে বর্ণাঢ্য কোনো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করছে না ভারতের ক্রিকেট বোর্ড— বিসিসিআই।
যদিও এখন পর্যন্ত সেই খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেনি আইসিসি বা বিসিসিআই। তবে অনুষ্ঠান আয়োজন নিয়ে বিসিসিআইয়ের নিশ্চুপ অবস্থানের কারণেই এমন গুঞ্জন বলেও খবর। সবশেষ খবর, আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে কেবল ১০ অধিনায়ককেই পরিচয় করিয়ে দেওয়া হবে। থাকবে লেজার শো। এর বাইরে বিস্তারিত আয়োজনের পথে হাঁটবে না বিসিসিআই। এর পরিবর্তে ১৪ অক্টোবর ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের আগে একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করা হতে পারে।
এছাড়া ১৯ নভেম্বর ফাইনালের আগেও থাকবে বর্ণিল অনুষ্ঠান। অবশ্য উদ্বোধনী অনুষ্ঠান কেমন হতে পারে, তা নিয়েও মুখ খোলেনি ভারত। দেশটির গণমাধ্যম জানিয়েছিল, দর্শকদের চমকে দিতে এমন গোপনীয়তার চেষ্টা তাদের। শেষ পর্যন্ত এমনটা হয়ে থাকলে ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথমবার কোনো ধরনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ছাড়া বিশ্বকাপ আয়োজন দেখবে ভক্তরা। ইতিমধ্যে সমর্থক থেকে শুরু করে সাংবাদিক- সকলেই বিসিসিআইয়ের এমন সিদ্ধান্তে হতবাক হয়েছেন। এমনকি কেউ কেউ বিশ্বকাপ বয়কটেরও হুমকি দিয়েছেন।
তবে এর আগে বিভিন্ন সূত্রে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলোর খবরে বলা হয়, বিশ্বকাপের উদ্বোধনী বিভিন্ন পরিবেশনায় থাকবেন বেশ কয়েকজন বলিউড অভিনেতা-অভিনেত্রী ও গায়ক-গায়িকা। এর মধ্যে গান পরিবেশনে থাকবেন কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী আশা ভোসলে, গায়ক ও সংগীত পরিচালক শঙ্কর মহাদেভান, কণ্ঠশিল্পী শ্রেয়া ঘোষাল ও অরিজিত সিং। নাচের পরিবেশনায় দেখা যাবে রণবীর সিং ও তামান্না ভাটিয়াকে। রণবীর বিশ্বকাপের অফিসিয়াল থিম সংয়েও অংশ নিয়েছিলেন।