উন্নয়নের ‘জোয়ারে’ নগরে জলাবদ্ধতা : মোশাররফ

30

দেশের প্রধান দুই নগর ঢাকা ও চট্টগ্রামে জলাবদ্ধতা সরকারের উন্নয়নের ‘জোয়ারের ফসল’ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ হোসেন। গতকাল শনিবার ঢাকায় এক আলোচনা সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য এই মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, উন্নয়নের নজির তো আমরা দেখছি। ফ্লাইওভার ঠিকই হয়েছে, কিন্তু ফ্লাইওভারের নিচে গত কদিনে দেখা গেল উন্নয়নের জোয়ার, পানির জোয়ার। উন্নয়নের জোয়ারে গত কদিন ঢাকা-চট্টগ্রামে জলাবদ্ধতার কারণে মানুষের যে পরিমাণ ক্ষতি এবং দুর্ভোগ হয়েছে, তাহলে এত টাকা খরচ করে কার জন্য উন্নয়ন করলেন? এই জনগণের জন্য। খবর বিডিনিউজের
উন্নয়নমূলক বিভিন্ন কাজে দুর্নীতির ইঙ্গিত করে সাবেক মন্ত্রী মোশাররফ বলেন, আমরা বুঝি কাদের জন্য এই উন্নয়ন করেছেন। সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগ তুলে তিনি বলেন, পদ্মা সেতু নিয়ে কে বা কারা ফেসবুকে কী একটা লিখেছে- এখানে মাথার দরকার হবে ইত্যাদি। সেটা ব্যাপারে আমরা শুনছি যে, গ্রেপ্তারও হচ্ছে কয়েকজন। কিন্তু সরকার বলে দিল, এর পেছনে বিএনপি আছে। এই যে একটা অপপ্রচার সব কিছুতে।
ব্যবসায়ী আ হ ম মুস্তফা কামালকে অর্থমন্ত্রী করার সমালোচনা করেন বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ বলেন, এবারের অর্থমন্ত্রী দেশের ১০ জন ধনী ব্যক্তির মধ্যে একজন। ধনী ব্যবসায়ীদের কোনো দেশের অর্থমন্ত্রী বানানো হয় না। আমাদের বাংলাদেশে এই প্রথম অর্থমন্ত্রী একজন ধনী ব্যবসায়ী। অর্থমন্ত্রী ধনীদের স্বার্থ দেখছেন দাবি করে তিনি বলেন, তিনি তো তাদের স্বার্থই দেখবেন, জনগণের স্বার্থ দেখবেন না।
খুন-ধর্ষণ থেকে সমাজবে মুক্ত করতে সব রাজনৈতিক দলকে নিয়ে সংলাপ ডাকতে রাষ্ট্রপতির প্রতি আহ্বান জানান খন্দকার মোশাররফ। তিনি বলেন, গুম-খুন-হত্যা-ধর্ষণ আজ মহামারি আকার ধারণ করেছে। সমাজে মূল্যবোধের অবক্ষয় ঘটেছে, পচন ধরেছে। এই মহামারি থেকে দেশকে রক্ষা করতে হলে দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে। তার আগ পর্যন্ত এখনই যেটা করা যেতে পারে, দেশকে রক্ষা করার জন্য মহামান্য রাষ্ট্রপতিকে বলতে পারি, তিনি জাতীয় একটি সংলাপ আহ্বান করে শিগগিরই একটা উদ্যোগ গ্রহণ করতে পারেন।
জাতীয় প্রেস ক্লাবে নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরামের উদ্যোগে ‘গুম-হত্যা-ধর্ষণের মহামারীর কবলে বাংলাদেশ আতঙ্কিত নাগরিক জীবন ও সরকারের ভুমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন মোশাররফ।
সংগঠনের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি মোজাম্মেল হক মিন্টুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমের পরিচালনায় আলোচনা সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আহমেদ আজম খান, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, বিলকিস ইসলাম, শাহ নেছারুল হক, ফরিদউদ্দিন, এলডিপির যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম, কল্যাণ পার্টির সাহিদুর রহমান তামান্না বক্তব্য রাখেন।