উখিয়ার এক ক্যাম্পে চাকরি করছে ১১০৪ রোহিঙ্গা!

26

উখিয়ায় ছোট-বড় মিলে ২২টি রোহিঙ্গা ক্যাম্প রয়েছে। এরমধ্যে ১৬নং- শফিউল্লাহকাটা ক্যাম্পে ১ হাজার ১০৪ জন রোহিঙ্গা বিভিন্ন এনজিও প্রতিষ্ঠানে কর্মরত রয়েছেন। এসব রোহিঙ্গাদের চাকরি থেকে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য স্থানীয় একেএম সাইফুল ইসলাম এবং এসএমজি মুফিজ উদ্দিন সংশ্লিষ্ট ক্যাম্প ইনচার্জসহ সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অভিযোগে জানা যায়, এনজিওতে রোহিঙ্গারা চাকরি পেলেও স্থানীয়রা বেকার হয়ে বসে রয়েছে। এছাড়া রোহিঙ্গারা চাকরি করে আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হয়ে উঠায় প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া বার বার বাধাগ্রস্থ হচ্ছে।
স্থানীয় অভিযোগকারী মুফিজ উদ্দিন জানান, শফিউল্লাহকাটায় রোহিঙ্গা সেবায় নিয়োজিত এনজিও কেয়ার বাংলাদেশে বিভিন্ন পদে ১৯৫ জন রোহিঙ্গা চাকরি করছে। এছাড়া ওয়াল্ড ভিশনে ৫০ জন, ব্রাকে ১৪৫ জন, ওয়াল্ড কনসানে ৪৫ জন, আহসানিয়া মিশনে ৬০ জন, ডিএসকে ৮২ জন, ফ্রেন্ডশীপে ৬০ জন, এমএসএফে ১৩০ জন, রিসডাতে ৩৬ জনসহ ২৭টি এনজিওতে মোট ১ হাজার ১০৪ জন রোহিঙ্গা ছেলে/মেয়ে চাকরি করছে বলে জানা গেছে।এ নিয়ে সংশ্লিষ্ট ক্যাম্প ইনচার্জ কাজী ওমর ফারুকের মোবাইল সংযোগ না পাওয়ায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
সূত্র জানায়, গত সেপ্টেম্বর মাসে ২৩ তারিখ এনজিও বিষয়ক ব্যুরো থেকে শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের নিকট প্রেরিত পত্রে বলা হয়, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে টিচার এবং মিডওয়াইফাই ছাড়া আর কোন পদে চাকরি করতে পারবেন না। কিন্তু কোন ক্যাম্পে এ আদেশ বাস্তবায়ন করা হয়নি।