আসছে শীত, জমে উঠছে গরম কাপড়ের বাজার

9

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঋতুচক্রে এখনও হেমন্ত হলেও প্রকৃতিতে বইতে শুরু করেছে শীতল হাওয়া। বছর ঘুরে আবারও আসি আসি করছে শীত। তবে গ্রামে শীতের কিছুটা আমেজ বিরাজ করলেও নগরীতে এখনো সেভাবে প্রভাব পড়েনি। গত কয়েক বছর দেশে শীতের সফর ছিল ক্ষণস্থায়ী। এদিকে শীতের আগমনী বার্তায় গরম কাপড় বিক্রির প্রস্তুতি নিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। এরই মধ্যে জমে উঠেছে হকার মার্কেট ও রিয়াজউদ্দিন বাজারে পাইকারি বিকিকিনি। সন্ধ্যা নামার সাথে সাথে নগরীর জনবহুল এলাকায় ভ্যানে করে গরম কাপড় বিক্রির আয়োজনও শুরু করেছেন ভ্রাম্যমাণ বিক্রেতারা।
নগরীর নিউ মার্কেট এলাকা ও হকার মার্কেটের সামনে গরম কাপড়ের পসরা সাজিয়ে বসেছেন বিক্রেতারা। অলিগলিতে ভ্যানে বিক্রির জন্যও শীতের পোশাক নিয়ে যাচ্ছেন ভ্রাম্যমাণ দোকানিরা। ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, এখানে মূলত চীন, জাপান, তাইওয়ান, দক্ষিণ কোরিয়া থেকে আসা শীতের পোশাক বিক্রি হয়। কোনো দেশি পোশাক নেই। এসব পোশাক ব্যবহƒত। বিশেষ করে জ্যাকেট, কটি, বেবি স্যুট, ভেলবেট জ্যাকেট, ট্রাউজার, বয়েজ জ্যাকেট, লেডিস জ্যাকেট, ফুলহাতা গেঞ্জি পাওয়া যায় এখানে। তারা আরও জানান, এসব পোশাকের মধ্যে কিছু আছে নতুন, আবার কিছু আছে ত্রæটিযুক্ত। শীতের পোশাক ছাড়াও শীত নিবারণের বিদেশি কম্বল, লেপ, কাঁথা, কমফোর্টার বিক্রি হয়।
এদিকে অন্যান্য বছর একটু দেরিতে এলেও এ বছর নভেম্বরের শুরুতেই অনুভূত হচ্ছে শীত। নগরজীবনে শীতের প্রভাব তেমনটা না থাকলেও এরই মধ্যে নগরের মার্কেট-শপিংমলগুলোতে আসতে শুরু করেছে শীতের পোশাক। গরম কাপড়ের পাইকারি বাজার জমে উঠলেও খুচরায় তেমন একটা বিকিকিনি নেই এখনও।
বিক্রেতারা জানান, গ্রামাঞ্চলে শীতের আমেজ দেখা দিলেও নগরজীবনে এখনো তেমন প্রভাব পড়েনি। ফলে এখনও গরম কাপড়ের বেচাকেনা জমে ওঠেনি। ফুটপাত থেকে শুরু করে অভিজাত শপিং সেন্টারেও প্রায় একই দৃশ্য দেখা যাচ্ছে।
হকার মার্কেটে সন্তানের জন্য শীতের কাপড় কিনতে আসা ক্রেতা শারমনি আক্তার বলেন, শীত শুরু হয়েছে। তাই নিজের ও বাচ্চাদের জন্য শীতের কাপড় কিনতে এসেছি। তবে এবার গত বছরের তুলনায় দাম একটু বেশি। দাম বেশি হলেও কিনতে তো হবে। মার্কেটের ব্যবসায়ীরা জানান, প্রতি বছরের মতো নিত্যনতুন ডিজাইনের শীতের কাপড় এসেছে। গত বছর শীতের কাপড়ের তেমন ব্যবসা হয়নি। এবার যেহেতু একটু তাড়াতাড়ি শীত অনুভূত হচ্ছে, আশা করছি ভালো বিক্রি হবে।
সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, হকার্স মার্কেটে মেয়েদের সোয়েটার ও জ্যাকেটের দাম মানভেদে ৫০০ থেকে ৮০০ টাকা, ছেলেদের সোয়েটার ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা, ছেলেদের জ্যাকেট ৫০০ থেকে ৩০০০ টাকা, বাচ্চাদের সোয়েটার ২০০ থেকে ৮০০ টাকা, মাফলার ১০০ থেকে ৪০০ টাকা এবং টুপি ১৫০ থেকে ২৫০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে।