আসছে বৃষ্টির দিন, নিতে হবে কাপড়েরও বাড়তি যত্ন

45

করোনায় কেটাকাটা প্রায় বন্ধ।খুব প্রয়োজনের বাইরে এখন আর শপিংও করা হয়না। হয়তো এভাবেই অভ্যস্ত হয়ে যাচ্ছি আমরা। প্রকৃতিতে আসছে বর্ষাকাল, আর তার আগাম বার্তা নিয়ে হাজির হয়েছে বৃষ্টি। আজকাল প্রায়ই বৃষ্টি হচ্ছে। এই বৃষ্টিতে প্রতিদিনের ধোয়া কাপড়গুলো ঠিকভাবে শুকাচ্ছে না, রোদের অভাবে। আর ভেজা কাপড় রেখে দিলে বা অনেক দিন আলমারির পোশাকগুলোও যদি ব্যবহার না করা হয়, তবে ফাঙ্গাস হয়ে নষ্ট হতে পারে।
ফাঙ্গাস বা ছত্রাক ভেজা জায়গায় জন্মায়। তাই বর্ষাকালে কাপড়ে এই ফাঙ্গাসের দেখা মেলে। যা কাপড়ের ক্ষতি করে।
কাপড় জামা বর্ষাকালের সম্পূর্ণভাবে না শুকোলে ফাঙ্গাস হয় :
হালকা ভেজা থাকলেও তিলা পড়তে দেখা যায় কাপড়ের মধ্যে। বৃষ্টিতে বাইরে থেকে ভিজে এসে ভেজা পোশাক ভালোভাবে না ধুলে তাতে তিলা পরার চান্স খুব বেশি থাকে। বর্ষাকালে ফাঙ্গাস ছাড়া কাপড় জামা কাটার পোকার উপদ্রব ও বাড়ে, তাই এদের থেকেও সাবধান।
আলমারিতে পোশাক রাখার সময়ও কিছু বিষয় মথায় রাখতে হয় :
* দীর্ঘ দিন একই ভাবে রাখলে অনেক সময় দেখা যায় সেগুলো ভাঁজে ভাঁজে কেটে যায়
* বা ফাঙ্গাস পড়ে রং ফেড হয়ে যায়
* সিল্কের শাড়ি কখনই ঝুলিয়ে রাখা যাবে না
* ভাঁজ করে সুতির কাপড়ে মুড়িয়ে আলমারিতে রাখলে তা ভালো থাকে
* শাড়িতে জরি থাকলে ভাঁজ করার সময় জরি ভেতরের দিকে রাখতে হবে
* মাসে অন্তত ১ বার করে ভাঁজ খুলে খোলা জায়গায় ছায়ার নীচে রেখে দিন
* টানা বৃষ্টি শুরু হওয়ার আগেই একদিন সব কাপড় বের করে রোদে শুকিয়ে নিন
* কয়েক ঘণ্টা পরে ভাঁজ পাল্টে আবার তুলে রাখুন।