আল্ট্রাসনোগ্রাফি করতে এসে শিশুর জন্ম এপিক হেলথ কেয়ারে

16

 

চট্টগ্রামের প্রথম ও একমাত্র আইএসও এক্রিডিটেশন সনদপ্রাপ্ত ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও বিশেষজ্ঞ ডাক্তার চেম্বার এপিক হেলথ কেয়ারে আল্ট্রাসনোগ্রাফি পরিক্ষা করতে এসে নবাগত শিশুর জন্ম দেয় রসি আক্তার। তাদের গ্রামের বাড়ি সাতকানিয়া উপজেলার কাগোরিয়া ইউনিয়নে। তার স্বামীর নাম মোহাম্মদ রুবেল। জানা যায়, রাতে রশি আক্তারের শারীরিক অবস্থা কিছুটা খারাপ হয়ে পড়লে পরিবারের লোকজন তাকে দ্রæত নিকটস্থ দোহাজারি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে দায়িত্বরত ডাক্তার তার অবস্থা দেখে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। চমেকহার বিশেষজ্ঞ ডাক্তার তাকে আল্ট্রাসনোগ্রাফি করতে বললে তারা রশি আক্তারকে এপিক হেলথ কেয়ারে নিয়ে আসে। আল্ট্রাসনোগ্রাাফি রুমে প্রবেশের পূর্বে মেঝেতে তার প্রসববেদনা উঠলে এপিক হেলথ কেয়ারের কর্মকর্তা-কর্মচারিরা চাদর দিয়ে তাকে ডেকে রাখে। মুহূর্তেই এপিকের কনসালটেন্ট ও কর্মকর্তা-কর্মচারিদের সহযোগিতায় ফুটফুটে কন্যা শিশুর জন্ম হয়। পরে এপিক হেলথ কেয়ারের উর্ধতন কর্মকর্তাগণ নবজাতকের শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নেন ও পরিবারের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।