আলোকিত মানুষ গড়ার উর্বর ক্ষেত্র বিশ্ববিদ্যালয়

5

মীরসরাই স্টুডেন্টস এসোসিয়েশন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে নবীন বরণ ও প্রবীণ বিদায় অনুষ্ঠান ২১ সেপ্টেম্বর চবি গ্রন্থাগার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন চবি উপ-উপাচার্য (একাডেমিক) প্রফেসর বেনু কুমার দে। চবি ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন প্রফেসর মো. হেলাল নিজামী এর সভাপতিত্বে এতে অতিথির বক্তব্য রাখেন চবি ফাইন্যান্স বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ নেছারুল করিম, চবি প্রাণ রসায়ন ও অণুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম, চবি রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. কামরুল হাসান, চবিউদ্ভিদ বিদ্যাবিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তাপস কুমার ভৌমিক ও চবি যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সাহাব উদ্দিন নিপু, চবি অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক শান্তনু দেব বর্মণ ও সহকারী অধ্যাপক মো. সাইফুদ্দীন। এ ছাড়াও অতিথির বক্তব্য রাখেন মিরসরাই স্টুডেন্টস এসোসিয়েশন চবি’র উপদেষ্টা ক্লিপটন গ্রুপের পরিচালক ও সিইও এমডি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী, ইউনাইটেড কমার্স লিমিটেড-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নূর উন নবী ভূইয়া এবং চট্টগ্রাম ও মিরসরাই সমিতি কাতার এর প্রেসিডিয়াম সদস্য নূরুল আবছার বাবলু। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ফাবিহা হক প্রমি ও মো. শরীফুল ইসলাম। উপাচার্য তাঁর বক্তব্যে নবীনদের স্বাগত এবং বিদায়ীদের অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, বিশ^বিদ্যালয় হচ্ছে আলোকিত মানবসম্পদ উৎপাদনের উর্বর ক্ষেত্র। এ বিদ্যাপীঠ থেকে জ্ঞানার্জন করে শিক্ষার্থীরা যোগ্য মানুষ হিসেবে গড়ে উঠে সমাজবিনির্মাণে কাঙ্খিত ভূমিকা রাখবে এটাই প্রত্যাশিত। প্রসঙ্গক্রমে উপাচার্য আরও বলেন, কর্মজীবনের জন্য নিজেকে করে গড়ে তোলার উপযুক্ত সময় হলো শিক্ষা জীবন। ছাত্রজীবনের প্রতিটি সময় অত্যন্ত মূল্যবান। উপাচার্য শিক্ষার্থীদেরকে ছাত্রজীবনের প্রতিটি মুহুর্তকে কাজে লাগিয়ে সম্মানিত শিক্ষকদের আদেশ-উপদেশ মেনে বিশ^বিদ্যালয় প্রদত্ত সুযোগ-সুবিধার সদ্ব্যবহারের মাধ্যমে নিজেদের যোগ্য করে গড়ে তোলার পরামর্শ দেন। তিনি বিদায়ী শিক্ষার্থীদের সফল কর্মময় জীবন কামনা করেন। বিজ্ঞপ্তি