আফগানিস্তানে ছেলেদের জন্য স্কুল খুলছে

2

আফগানিস্তানে খুলে দেওয়া হচ্ছে ছেলেদের স্কুল। বিবৃতি দিয়ে একথা জানিয়েছে দেশটির নতুন তালেবান সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তবে মেয়েরা কবে নাগাদ ক্লাসে ফিরতে পারবে সে সম্পর্কে কিছু জানানো হয়নি বিবৃতিতে। শুক্রবার তালেবান সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয় ঘোষণা জানিয়েছে, সপ্তম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষা কার্যক্রম চালু হচ্ছে। পুরুষ শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা তাদের নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। তবে নারী শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীরা ফিরতে পারবেন কিনা, এ বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। তালেবান সরকারের এই আদেশে বহু শিক্ষার্থী ঝড়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।তালেবান রাজধানী কাবুল দখলের পর এক মাস পেরিয়ে গেছে। দেশের নাজুক অর্থনীতির গতি সচল করা এবং শহরে-নগরে স্বাভাবিক জীবন ফিরিয়ে আনতে তালেবান শাসকদেরকে রীতিমত সংগ্রাম করতে হওয়ায় বেশিরভাগ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এতদিন বন্ধই থেকেছে। অল্পসংখ্যক যে কয়টি স্কুল কার্যক্রম শুরু করতে পেরেছে তার মধ্যে কিছু স্কুলে ষষ্ঠ শ্রেণি পর্যন্ত মেয়েরা ক্লাসে যাচ্ছে। এছাড়া, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে নারীদেরকে ক্লাস করতে দেখা গেছে। তবে আফগানিস্তানজুড়ে উচ্চ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়গুলো এখনও খুলে দেওয়া হয়নি। তালেবানের অন্তর্বর্তী সরকারের কর্মকর্তারা এরই মধ্যে বলেছেন, এবারের তালেবান শাসনামল সেই ১৯৯৬-২০০১ সালের তালেবান আমলের মতো হবে না। ওই সময় নারীশিক্ষা নিষিদ্ধ ছিল। কিন্তু এবার তালেবান প্রতিশ্রæতি দিয়ে বলেছে, মেয়েদেরকে পড়াশোনার সুযোগ দেওয়া হবে। তবে এখন শিক্ষামন্ত্রণালয় শুক্রবার ছেলেদের জন্য স্কুল খোলার ঘোষণা দিলেও মেয়েদের ব্যাপারে আদৌ কোনও কিছু বলেনি।