আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেল ফুটফুটে মেয়েটি

23

মিরসরাই প্রতিনিধি

মিরসরাইয়ে একটি বসতঘরে অগ্নিকান্ডে লামিয়া আক্তার নামে এক বছর বয়সী এক কন্যা শিশু মারা গেছে। নতুন ঘর নির্মাণের জন্য ঘরটিতে রাখা নগদ ৬ লাখ টাকাও পুড়ে গেছে।
গতকাল শুক্রবার দুপুর দেড়টায় উপজেলার ৬নং ইছাখালী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের জমাদার গ্রামের গোলবক্স মুহুরী বাড়ির আজিজুল হকের ঘরে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।
খবর পেয়ে মিরসরাই ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল স্টেশনের কর্মীরা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। নিহত লামিয়া ওই বাড়ির বাসিন্দা প্রবাসী রাজিব আহম্মদের মেয়ে।
আজিজুল হকের আত্মীয় হুমায়ুন কবির বলেন, ঘরে যখন আগুন লাগে তখন আমার মামা আজিজুল হক মসজিদে ছিলেন। ঘরের নারী সদস্যরা বাইরে কাজ করছিলেন। শিশু লামিয়ার মা সন্তানকে ঘরে শুইয়ে রেখে পুকুরে গোসল করতে যান। আগুন লাগার পর ঘর থেকে লামিয়াকে বের করা সম্ভব হয়নি। পুড়ে অঙ্গার হয়ে যায় শিশুটি।
তিনি আরও বলেন, নতুন ঘর নির্মাণের জন্য ঘরে গচ্ছিত রাখা ৬ লাখ টাকা, স্বর্ণালংকার, আসবাবপত্র ও মূল্যবান কাগজপত্র কিছুই রক্ষা করা যায়নি। এতে প্রায় ৩০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মীর হোসেন জানান, গোল বক্স মুহুরী বাড়িতে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয়। এতে আজিজুল হকের পুরো ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। তার ১ বছর বয়সী নাতনীও দগ্ধ হয়ে মারা যায়। পরে ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।
ইছাখালি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল মোস্তফা জানান, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে আগুনের সূত্রপাত বলে ধারণা করা হচ্ছে। আগুন লাগার সময় বাড়িতে একটি শিশু ছাড়া অন্য কেউ না থাকায় ঘরের মধ্যেই পুড়ে শিশুটি মারা যায়। আগুন লাগার কিছুক্ষণ পর ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।
মিরসরাই ফায়ার সার্ভিস স্টেশন এন্ড সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের লিড়ার হায়াতুন্নবী বলেন, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়ে ৪ কক্ষ বিশিষ্ট একটি বসতঘর পুড়ে যায়। দুপুর দেড়টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। আগুনে ঘুমন্ত অবস্থায় থাকা ১ বছর বয়সী এক কন্যা শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সম্ভবত মা শিশুটিকে ঘুমে রেখে গোসল করতে গিয়েছিলেন। খবর পেয়ে আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হই। অন্যথায় আরো বেশি ক্ষতি হতো। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নির্ধারণের চেষ্টা চলছে।