অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ড্রয়ে জোকোভিচ

4

 

আদালতের রায়কে পক্ষে পেলেও নোভাক জোকোভিচ অস্ট্রেলিয়ায় থাকতে পারবেন কিনা, নিশ্চিত নয় এখনও। এমন অনিশ্চয়তার মধ্যেই হয়ে গেল অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের ড্র। সেখানে অবশ্য ঠিকই আছেন সার্বিয়ার এই টেনিস তারকা। আগামী সোমবার শুরু হতে যাচ্ছে বছরের প্রথম এই গ্র্যান্ডস্ল্যাম। প্রথম রাউন্ডে স্বদেশি মিওমির কেচমানোভিচের বিপক্ষে লড়বেন জোকোভিচ। গত সপ্তাহে জোকোভিচ অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছানোর পরই ঘটনাবহুল এই জটিলতার শুরু। এই টেনিস গ্রেট কোভিডের টিকা না নিয়ে সেখানে যাওয়ার কারণেই এতসব সমস্যার সৃষ্টি। দেশটিতে প্রবেশের জন্য এখন কোভিড টিকা নেওয়ার বাধ্যবাধকতা থাকলেও আগামী সোমবার থেকে অনুষ্ঠেয় অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলার সুযোগ দিতে জোকোভিচের ক্ষেত্রে ওই শর্ত শিথিল করে ভিসা দেওয়া হয়েছিল। টিকা না নিয়েও জোকোভিচের ভিসা পাওয়ার সেই খবরে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে অস্ট্রেলিয়া সরকার। সরকার করদাতাদের ক্ষেত্রে নিয়মের কড়াকড়ি করলেও বিদেশিদের ছাড় দিচ্ছে বলে অভিযোগ ওঠে। প্রতিবাদের মুখে মেলবোর্নের টুলামারিন বিমানবন্দরে নামার পর তাকে আটকে দেওয়া হয়। তবে জোকোভিচ আইনি লড়াইয়ে নামেন এবং গত সোমবার বিচারক অ্যান্থনি কেলি ৯ বারের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জয়ীর পক্ষে রায় দেন। আদালতের রায় পক্ষে পাওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরই অনুশীলনে নামেন জোকোভিচ। বৃহস্পতিবারও মেলবোর্ন পার্কে অনুশীলন করেছেন তিনি। তবে ৩৪ বছর বয়সী তারকার এই টুর্নামেন্টে খেলা নিশ্চিত নয়। আদালতের রায় জোকোভিচের পক্ষে থাকলেও অস্ট্রেলিয়া সরকার নির্বাহী ক্ষমতাবলে তার ভিসা বাতিল করতে পারেন।