24



এমপি মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী :
বিজয় দিবসে চট্টগ্রামের দায়িত্বপ্রাপ্ত এমপি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপিকা, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপিকা মাসুদা এম রশীদ চৌধুরী চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ১৬ ডিসেম্বর মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের স্মরণে নগরীতে র‌্যালি সহকারে পুষ্পমাল্য প্রদান করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। র‌্যালিতে উপস্থিত ছিলেন ব্যারিস্টার সানজিদ রশীদ চৌধুরী, ডা. সৈয়দ আবুল কাসেম, নাছির উদ্দিন ছিদ্দিকী, এস এম সাইফুল্লাহ সাইফু, কাজী শামসুল ইসলাম রঞ্জন, কে এম আবছার উদ্দিন রনি, কায়সার হামিদ মুন্না, কাজেমুল হাসান শাহেদ, মো. পারভেজ হোসেন, আলী এমরান, মোহাম্মদ আলী, কামাল উদ্দিন মাসুদ, এম এ শুক্কুর, বোরহান উদ্দিন, দিদারুল আলম, আবু হানিফ নোমান প্রমুখ।
সাদার্ন ইউনিভার্সিটি :
সাদার্ন ইউনিভার্সিটিতে ১৬ ডিসেম্বর সকালে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে কর্মসূচি শুরু হয়। এরপর বিএনসিসি ক্যাডেটদের কুজকাওয়াজ পরিদর্শন করে অভিবাদন গ্রহণ করেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. নুরুল মোস্তফা, উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা সরওয়ার জাহানসহ অন্যান্যরা। ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের উদ্যোগে ও পরিকল্পনায় আয়োজিত বিজয় দিবসের কর্মসূচিতে ছিল-আলোচনা সভা, মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র প্রদর্শন, রচনা প্রতিযোগিতা, দেয়ালিকা প্রকাশ, পিঠা উৎসব, সমবেত কন্ঠে জাতীয় সংগীত পরিবেশন, সাংস্কৃতিক ও পুরস্কার বিতরণ। ইউনিভার্সিটি হলরুমে আয়োজিত আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. নুরুল মোস্তফা, প্রফেসর সরওয়ার জাহান, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ইঞ্জিনিয়ার এম আলী আশরাফ, রেজিস্ট্রার, বিভিন্ন বিভাগের উপদেষ্টা, বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষকবৃন্দ এবং কর্মকর্তাসহ শিক্ষার্থীরা।
পোর্ট সিটি ইউনিভার্সিটি :
বিজয় দিবসে মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদদের শ্রদ্ধায় স্মরণ করেছে পোর্ট সিটি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। গত ১৬ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে ভোর সাড়ে ৬টায় জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে ৪৯তম বিজয় দিবস উদ্যাপনের সূচনা করা হয়। পরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণ থেকে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. নূরল আনোয়ার এর নেতৃত্বে শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারিবৃন্দ চট্টগ্রাম শহীদ মিনারের মূল বেদিতে ফুল দিয়ে মহান মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডীনবৃন্দ, অধ্যাপক ইঞ্জিনিয়ার মফজল আহম্মেদ, রেজিষ্ট্রার, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, প্রক্টর, বিভিন্ন বিভাগের সভাপতিসহ শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।
বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটি :
বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটির উদ্যোগে আলোচনা সভা উপাচার্য প্রফেসর ড.সরোজ কান্তি সিংহ হাজারীর সভাপতিত্বে ইউনিভার্সিটি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য দেন ট্রেজারার প্রফেসর এএনএম ইউসুফ চৌধুরী, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডীন প্রফেসর রনজিত কুমার দে, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর ড. নারায়ণ বৈদ্য, ফার্মেসী বিভাগের প্রফেসর ড. নারায়ণ বৈদ্য, রেজিস্ট্রার এএফএম আখতারুজ্জামান কায়সার, ইংরেজী বিভাগের চেয়াম্যান খালেদ বিন চৌধুরী, এমবিএ প্রোগ্রামের কো-অর্ডিনেটর সহযোগী অধ্যাপক কামাল উদ্দীন, বিবিএ প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর সহযোগী অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ সরওয়ার উদ্দীন, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ নুরুল আবছার, ফার্মেসী বিভাগের চেয়ারম্যান অনিন্দ্য কুমার নাথ, ডেপুটি রেজিস্ট্রার সালাহ উদ্দীন শাহরিয়ার।
বিডিএমএ চট্টগ্রাম শাখা :
বিডিএমএ চট্টগ্রাম জেলা শাখা মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ১৬ ডিসেম্বর সকালে র‌্যালি ও শহীদ বেদীতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে। পরে আলোচনা সভা সংগঠনের অস্থায়ী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। দিবসের তাৎপর্য্য নিয়ে সিনিয়র সহ-সভাপতি ডা. মহিউদ্দিন এর সভাপতিত্বে সভা সভায় বক্তারা বিজয়ের সুফল গ্রামবাংলার প্রান্তিক জনগোষ্ঠির কাছে স্বাস্থ্যসেবার মাধ্যমে ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়ার জন্য ডিপ্লোমা চিকিৎসকদের প্রতি আহŸান জানান। সংগঠনের সহ সাধারণ সম্পাদক ডা. মিহির বরণ বড়–য়ার সঞ্চালনায় ও সাধারণ সম্পাদক ডা. তপন নন্দীর স্বাগত বক্তব্যে আলোচনা করেন বিডিএমএ চট্টগ্রাম জেলার প্রধান উপদেষ্টা ডা. শুভময় চৌধুরী, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের প্রাক্তন অতিরিক্ত মহাসচিব ডা. আবুর মনছুর চৌধুরী, চট্টগ্রাম জেলার সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি ডা. মুকুল কান্তি রায়, সহ সভাপতি ডা. বিমল কান্তি ধর, ডা. মো. আবদুজ জব্বার, প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক ডা. বিপ্লব বড়–য়া, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. জসিম উদ্দিন, কার্যকরি সদস্য ডা. মো. সঞ্জয় সিকদার, ডা. কানন মজুমদার, অর্থ সম্পাদক ডা. লক্ষীনারায়ণ চৌধুরী, ডা. প্রনব কান্তি সেন প্রমুখ।
পাহাড়তলী কলেজ :
পাহাড়তলী কলেজে ১৬ ডিসেম্বর সকাল ৯টা ০১ মিনিটে কলেজ প্রাঙ্গণে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে দিনটির আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। কলেজ অধ্যক্ষ শ্যামল কান্তি মজুমদারের নেতৃত্বে শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী ও তাদের অভিভাবকদের সমন্বয়ে বিজয় র‌্যালি কলেজের বিভিন্ন অংশ ও একাডেমিক ভবন প্রদক্ষিণ করে কলেজ শহীদ মিনারে গিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শেষ হয়। সকাল ১০টায় কলেজ অধ্যক্ষের সভাপতিত্বে বিজয় দিবস উদ্যাপন কমিটির আহŸায়ক অধ্যাপক কাজী মো. মুজিবুর রহমান, অধ্যাপিকা ফরিদা সুলতানা, অধ্যাপিকা সুরাইয়া বেগম, অধ্যাপক মুহাম্মদ হানিফ, অধ্যাপিকা মাকসুদা বেগম সহ কলেজের সকল শিক্ষক-কর্মচারী ও বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থী এবং তাদের অভিভাবকদের উপস্থিতিতে কলেজের ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক রাশেদ মো. মোকাম্মেল হক এর সঞ্চালনায় সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
কোরআন তেলাওয়াত করেন একাদশ শ্রেণির ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের শিক্ষার্থী সাইফুল ইসলাম রনি, গীতা পাঠ করেন অনামিকা দাশ এবং নিময়ই মারমা ত্রিপিটক পাঠ করেন। জাতীয় সংগীত এবং শহীদদের সম্মানে এক মিনিট নীরবতা পালনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। বিজয় দিবস উদ্যাপন কমিটির আহŸায়ক অধ্যাপক কাজী মো. মুজিবুর রহমান স্বাগত বক্তব্য দেন। সভামঞ্চে কলেজের ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক সাইফুল হক, বাংলা বিভাগের প্রভাষক আরজিদা রওজাত বানু, গণিত বিভাগের প্রভাষক মো. মহিন উদ্দিন, অর্থনীতি বিভাগের প্রভাষক পলি লোধ ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রভাষক শামীম আরা বেগম শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য দেন। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে কলেজের শিক্ষক ও বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীবৃন্দ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গান, আবৃত্তি ও নৃত্য পরিবেশন করেন।
কাট্টলী আইডিয়্যাল কিন্ডারগার্টেন :
বিজয় দিবস উপলক্ষে কাট্টলী আইডিয়্যাল কিন্ডারগার্টেন অ্যান্ড হাইস্কুল আয়োজিত ‘মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ’ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। শিক্ষক তুষার আহমেদ ও পূর্ণা দাশের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন আকবরশাহ থানা সংসদের সহ-কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা নুরউদ্দিন চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা আলাউদ্দিন চৌধুরী। রুহুল আমীন নিজামীর সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি টুনটু দাশ বিজয়। সভা শেষে মুক্তিযোদ্ধারা পায়রা উড়িয়ে বিজয় দিবসের কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। এর আগে বিজয় দিবস উপলক্ষে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি কাট্টলীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।
তৃণমূল এনডিএম :
বিজয় দিবস উপলক্ষে শহীদদের স্মরণে তৃণমূল এনডিএমের চেয়ারম্যান খোকন চৌধুরী ও এলাকাবাসিদের নিয়ে পুরাতন চান্দগাঁও থানাস্থ শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। এ উপলক্ষে সকাল ৯টায় বহদ্দারহাট স্বাধীনতা কমপ্লেক্স থেকে র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালিতে উপস্থিত ছিলেন মো. নুরুল ইসলাম চোধুরী, কাজী শহীদ উল্লাহ, এম এস চৌধুরী শুভ, সিরাজন্নুর বেগম, সুভাস বড়ুয়া, জাহানারা বেগম, মোরশেদ আলম চৌধুরী, পীকাশ শীল সাগর, মোহাম্মদ আলী, নুরুল কবির শাহ, ফাতেমা আকতার, রোকসানা আকতার, টুম্পা মনি, বুলবুল আকতার, নিশাদ, মর্তুজা বেগম, সাহেদা আকতার, জাহানারা বেগম, মিতু আকতার, ফুল মিয়া, লিটন, মো. হাবিব, মো. তুষার, শেখ আলম, শাহিন আলম, জয় দাশ, মো. জাহেদুল কবির, সুনীল দাশ, প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।
শ্রীঅরবিন্দ উচ্চ বালিকা বিদ্যাপীঠ :
বোয়ালখালীর শ্রীঅরবিন্দ উচ্চ বালিকা বিদ্যাপীঠে বিজয় দিবস উপলক্ষে ১৬ ডিসেম্বর সকালে বিদ্যাপীঠের শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ, জাতীয় সংগীত ও পরে আলোচনা সভা সকাল ১০টায় বিদ্যাপীঠের হলকক্ষে প্রধান শিক্ষক লিটন কুমার চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিদ্যাপীঠের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি প্রকৌশলী হৃষিকেশ চৌধুরী, বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষানুরাগী সদস্য কুমার কান্তি চৌধুরী, অভিভাবক সদস্য ধীরেন্দ্র নাথ। বক্তব্য দেন সহকারী প্রধান প্রদীপ কুমার দাশ, সিনিয়র শিক্ষক প্রদীপ কুমার কর, সুনিল নন্দী, সংগীতা চৌধুরী, রুপ্না দত্ত, রীনা ভৌমিক, বিউটি নাথ, জাহেদা বেগম, শেফু ধর, রূপক কান্তি বসু প্রমুখ। ছাত্রীদের মধ্যে তেলোয়াত, গীতাপাঠ, গান, কবিতা ও কথামালায় অংশ নেয় তানিয়া জাহান, দীপা মিত্র, স্নেহাশ্রী চৌধুরী, অর্পিতা মিত্র, সাথী চৌধুরী, কোহেলী চক্রবর্তী, অপর্ণা মিত্র, শাওনী আচার্য, টিসা চৌধুরী, তানজিনা সুলতানা,অপর্ণা চক্রবর্তী, অর্পিতা চৌধুরী। সংগীত পরিচালনায় সিনিয়র শিক্ষক সংগীতা চৌধুরী এবং অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন শিক্ষক রূপক কান্তি বসু।
ছিপাতলী কামিল মাদরাসা :
ছিপাতলী জামেয়া গাউছিয়া মূঈনীয়া কামিল (এমএ) মাদরাসার উদ্যোগে বিজয় দিবস আনজুমানে কাদেরিয়া চিশতীয়া আজিজিয়া বাংলাদেশ এর সভাপতি অধ্যক্ষ আবুল ফরাহ মুহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন (মাজিআ) এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। বক্তব্য দেন উপাধ্যক্ষ মুহাম্মদ আবদুল অদুদ আল-কাদেরী, মুহাদ্দিস আল্লামা একেএম ইউসুফ, মাওলানা মোহাম্মদ কামাল উদ্দিন, মাওলানা মুফতী আবদুল মোস্তফা রেজভী, মাওলানা মুহাম্মদ আবদুন নবী, অধ্যাপক আলী আজগর, অধ্যাপক মাহফুজুল হক।
মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন মাদরাসা পরিচালনা কমিটি সদস্য মোহাম্মদ ইকবাল চৌধুরী, মাওলানা মুফতী আবদুচ ছমদ, মাওলানা মোহাম্মদ শফিউল আলম আজিজি, মাওলানা লিয়াকত আলী, মাওলানা খাজা আহমদ, হাফেজ রুহুল আমিন, মাওলানা মাহমুদুল হক, মাস্টার জামাল উদ্দিন, তসলিমা নূর, তাহেরা সুলতানা, পারভিন আকতার প্রমুখ। শেষে শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়।
বটতলী এয়াকুবিয়া দাখিল মাদরাসা :
আানোয়ারার বটতলী শাহ্ মোহছেন আউলিয়া (রহ.) এয়াকুবিয়া দাখিল মাদরাসার উদ্যেগে বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, সাং¯কৃতিক অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভা ছালেহ আহমদ চৌধুরী হলরুমে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন মাদরাসা পরিচালানা পরিষদের সভাপতি এডভোকেট সালাহ্িদ্দন আহমদ চৌধুরী লিপু।
মাদরাসা সুপার মাওলানা মো. হাশেমের রশিদ এর সভাপতিত্বে ও সিনিয়র শিক্ষক ওমর ফারুক বাবু’র সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন নিজাম উদ্দিন আহমদ চৌধুরী, মো. আইয়ুব আলী, মো. তৈয়ব, সিরাজুল ইসলাম, আবদল গফুর ও হাবিবুর রহমান। বক্তব্য দেন মাওলানা মো. ইলিয়াছ, শিক্ষক মো. আজম উদ্দিন নুরী, বদিউল আলম চৌধুরী, মো. হেফজুর রহমান, মাওলানা ওসমান গণি, মাওলানা খুরশীদ আহমদ, মাওলানা মো. বাহার, শিক্ষিকা জেসমিন আক্তার, শাহিদা বেগম ও মিসকাতুন নেছা প্রমুখ। সভা শেষে শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মুনাজাত করেন মাওলানা নেছার আহমদ হাবিবী।
কধুরখীল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় :
কধুরখীল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে বিজয় দিবসে স্মৃতিসৌধে পুস্পস্তবক প্রদান, চিত্রাংকন, রচনা প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান শিক্ষক বাবুল কান্তি দাশ’র সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালা পরিষদের সভাপতি ও কধুরখীল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিউল আজম শেফু। শিক্ষক শুভাশীষ নাথ এর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল করিম, অজয় কুমার চৌধুরী, লিটন ধর, উত্তম চৌধুরী, উবাইদুল হক, অমরনাথ চক্রবর্তী, দেবী দত্ত, তনুশ্রী বিশ্বাস, লিপি রানী শীল, মিজানুর রহমান, দিল আফরোজ হীরা। সংগীত পরিবেশন করে মুমু চৌধুরী, টিসা ধর, সাইরিন আকতার, বৃষ্টি চৌধুরী, পূর্ণা চৌধুরী, অর্পিতা চৌধুরী, পুস্পিতা চৌধুরী। অনুষ্ঠান শেষে প্রতিযোগিতায় কৃতিত্ব অর্জনকারী শিক্ষার্থীদের পুরস্কার প্রদান করা হয়। বিজ্ঞপ্তি