নগরীতে অভিযান

৮ প্রতিষ্ঠানকে ৬৪ হাজার টাকা জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক

15

ভোক্তা অধিকার বিরোধী বিভিন্ন অপরাধে ৮টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, চট্টগ্রাম। গতকাল মঙ্গলবার নগরীর ১৫টি প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করে ৮টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়।
অভিযানকালে বাসি খাবার, হাইড্রোজ, মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ ও বিক্রয় নিষিদ্ধ ওষুধ ধ্বংস করা হয়েছে। অভিযানে মোট ৬৪ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।
অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক নাসরিন আক্তার ডবলমুরিং থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি ও সংরক্ষণ করায় বেলাল ফার্মেসি ও নিউ বেলাল ফার্মেসিকে যথাক্রমে ৫ হাজার ও ২ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এ সময় মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ ধ্বংস করা হয়। সফি উল্যাহ হোটেলকে বাসি খাবার বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে ফ্রিজে কাঁচা মাংস-মাছের সাথে রান্না করা খাবার রাখা, সংবাদপত্রে খাবার সংরক্ষণ করা, নোংরা পানিতে থালা বাসন ধোয়ায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
বিভাগীয় কার্যালয়ের অপর সহকারী পরিচালক বিকাশ চন্দ্র দাস আকবর শাহ থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় মেয়াদ উত্তীর্ণ ও অননুমোদিত বিদেশি ওষুধ বিক্রয় ও সংরক্ষণ করায় উত্তর কাট্টলির মাতৃ মেডিসিন ও সিটি ফার্মেসিকে ১০ হাজার টাকা করে জারিমানা করেন। একই সাথে মেয়াদ বিহীন, বিক্রয় নিষিদ্ধ ও মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ ধ্বংস করা হয়।
অধিদপ্তরের জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান খুলশি ও বায়েজিদ থানা এলাকায় তদারকিমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করেন। এ সময় ওয়ারলেস মোড় এলাকার দি চিটাগাং হোটেলকে খাবার সংরক্ষণে সংবাদপত্র ব্যবহার, কাঁচা মাছ-মাংসের সাথে রান্না করা খাবার সংরক্ষণ করায় ১৫ হাজার টাকা জরিমানা ও বাসি খাবার ধ্বংস করা হয়।
টেকনিক্যাল মোড় এলাকার ছায়েরা হোটেলকে হাইড্রোজ ব্যবহার, অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে খাবার প্রক্রিয়া করায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও হাইড্রোজ ধ্বংস করা হয়েছে। নির্ধারিত দামের চেয়ে বেশি দামে কোমল পানীয় বিক্রয় করায় জনৈক অভিযোগকারীর অভিযোগের ভিত্তিতে বায়েজিদ থানাধীন ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটি ক্যাফেটেরিয়াকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করে সতর্ক করা হয়েছে।