৩৩টি বিপন্ন প্রজাতির প্রাণির সুরক্ষা বাড়াতে সম্মত ১২৯ দেশ

বাংলাট্রিবিউন

21

বিশ্বের ৩৩টি বিপন্ন প্রজাতির পরিযায়ী প্রাণীর জন্য বাড়তি সুরক্ষা নিশ্চিত করার ব্যাপারে সম্মত হয়েছে ১২৯টি দেশ। ফিলিপাইনে অনুষ্ঠিত ছয়দিনের পরিযায়ী প্রজাতিবিষয়ক কনভেনশনের (সিএমএস) শেষ দিন শনিবার প্রস্তাবটি অনুমোদিত হয়।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয় ছয়দিন ব্যাপী কনভেনশনটিতে ১২৯টি দেশের ১ হাজারেরও বেশি প্রতিনিধি অংশ নিয়েছিলেন। জাতিসংঘের পরিবেশবিষয়ক কর্মসূচির আওতায় দ্বাদশ বারের মতো কনভেনশনটি আয়োজিত হয়। সম্মেলনে ১২৯টি দেশের প্রতিনিধিদের মধ্যে প্রজাতির সুরক্ষা নিয়ে বিতর্ক হয়। শনিবার ছিল সম্মেলনটির শেষ দিন। এদিন দেশগুলো পরিযায়ী প্রজাতি অর্থাৎ নিজ দেশের সীমানা পার হয়ে ভীন দেশে যাওয়া বিপন্ন প্রজাতির বন্য প্রাণীগুলোর সুরক্ষা বাড়ানোর দাবি তোলে। সিএমএস এর নির্বাহী সচিব ব্র্যাডনি চেম্বার বলেন, ‘প্রত্যেককে কোমর বেঁধে নামতে হবে। এর মধ্য দিয়ে এ বার্তা পৌঁছানো যাবে যে পরিযায়ী প্রজাতির বন্যপ্রাণীর ভবিষ্যত থেকে আমাদের নিজেদের ভবিষ্যতকে আলাদা করা যায় না এবং আমাদের সবারই এ ব্যাপারে উদ্যোগী হওয়ার দায়িত্ব রয়েছে।’

সম্মেলনে যেসব প্রজাতির সুরক্ষা বাড়ানোর ব্যাপারে সবাই সম্মত হয়েছে সেগুলো হল- শিম্পাঞ্জি, চিতাবাঘ, জিরাফ, চার প্রজাতির হাঙর, দশ প্রজাতির শকুন, আফ্রিকার বিভিন্ন বিপন্ন প্রজাতির স্তন্যপায়ী প্রাণী এবং গোবি ভল্লুক।

পরিযায়ী প্রজাতির ওপর সামুদ্রিক আবর্জনা, শব্দ দূষণ এবং জলবায়ূ পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব কমাতে পরস্পরকে সহযোগিতা করারও অঙ্গীকার করেছে সম্মেলনে অংশ নেওয়া দেশগুলো।