১ হাজার রুপিতে ৭৫০ কেজি পেঁয়াজ

মোদির তহবিলে দান করে প্রতিবাদ কৃষকের

14

ভারতের মহারাষ্ট্রে প্রতিকেজি পেঁয়াজ মাত্র এক রুপিতে বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন কৃষকরা। এর প্রতিবাদে সেখানকার এক কৃষক তার উৎপাদিত ৭৫০ কেজি পেঁয়াজ বিক্রির টাকা দান করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির তহবিলে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, মহরাষ্ট্রের নাসিক জেলার কৃষক সঞ্জয় সাতে। ২০১০ সালে তৎকালীণ মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার ভারত সফরের সময় এই কৃষককেই আদর্শ হিসেবে হাজির করা হয়েছিল। ওবামাকে শুনিয়েছিলেন সফলতার গল্প। আবহাওয়া বার্তা শুনে সঞ্জয়ই সেখানকার কৃষকদের পরামর্শ দেন কিভাবে কৃষিকাজ করলে অধিক ফলন সম্ভব। এবার সেই সঞ্জয়ই পেঁয়াজের ন্যায্য মূল্য না পেয়ে ক্ষুব্ধ।
পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সঞ্জয় বলেন, ‘আমি এই মওসুমে কষ্ট করে ৭৫০ কেজি পেঁয়াজ উৎপাদন করেছি। কিন্তু স্থানীয় পাইকারি বাজারে নিয়ে যাওয়ার পর প্রতি কেজি পেঁয়াজ এক রুপিতে কিনতে চাচ্ছিল ব্যবসায়ীরা। সঞ্জয় আরও বলেন, সবশেষে আমি ১ রুপি ৪০ পয়সায় বিক্রি করতে রাজি হই। এতে করে ৭৫০ কেজি পেঁয়াজের দাম হয় ১ হাজার ৬৪ রুপি। আমি এই টাকা প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা তহবিলে দান করে দিয়েছি।
এই টাকা মানি অর্ডার করার জন্য আমার আরও ৫৪ টাকা বেশি দিতে হয়েছে। ক্ষুব্ধ সঞ্জয় বলেন, ‘আমি কোনও রাজনৈতিক দলের নই। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী তহবিলে পাঠিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছি আমি। আমি ক্ষুব্ধ কারণ সরকার আমাদের জন্য কোনও ব্যবস্থা নেয় না। মহারাষ্ট্রের এই নাসিকেই ভারতের ৫০ শতাংশ পেঁয়াজের উৎপাদন হয়। আট বছর আগে এলাকায় কৃষিক্ষেত্রে অবদানের জন্য মুম্বাইয়ের সেন্ট জ্যাভিয়ের্স কলেজে ওবামার সঙ্গে কথা বলার সুযোগ হয়েছিল সঞ্জয়ের।
২৯ নভেম্বর পাঠানো ওই মানি অর্ডারে লেখা ছিল, নরেন্দ্র মোদি, প্রাইম মিনিস্টার অব ইন্ডিয়া।