হাসপাতালে এটিএম শামসুজ্জামান

4

বর্ষীয়ান অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান অসুস্থ। তাকে গত ২৬ এপ্রিল রাতে পুরান ঢাকার আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল দুপুর ১টা নাগাদ তার শরীরে অস্ত্রোপচার করা হয়েছে বলে বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন অভিনেতার ছেলের স্ত্রী রুবি জামান।
রুবি বলেন, ‘দীর্ঘদিন উনার (এটিএম শামসুজ্জামান) পেটে হজম হওয়া কিছু খাবার জমা হয়ে শক্ত হয়ে যেত। চিকিৎসকরা বিষয়টি প্রথম দিকে ধরতে পারেননি। গতকাল রাতে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। চিকিৎসকরা অসুস্থতার কারণটি ধরতে পারেন। তাই আজ অস্ত্রোপচার করে এগুলো বের করা হচ্ছে।’ ৮৮ বছর বয়সী এ অভিনেতা অধ্যাপক ডা. রাকিব উদ্দিনের তত্ত¡াবধানে চিকিৎসা নিচ্ছেন।
রুবি জামান আরও বলেন, ‘উনার বয়স হয়েছে। অপারেশনের ধকলটি সামাল দেওয়াটা তার জন্য বেশ কঠিন হবে। তাই দেশবাসীর কাছে উনি দোয়া চেয়েছেন।’
এটিএম শামসুজ্জামানের চলচ্চিত্র জীবনের শুরু ১৯৬১ সালে পরিচালক উদয়ন চৌধুরীর ‘বিষকন্যা’ চলচ্চিত্রে সহকারী পরিচালক হিসেবে। প্রথম কাহিনি ও চিত্রনাট্যকার হিসেবে কাজ করেছেন ‘জলছবি’ ছবিতে। এ পর্যন্ত শতাধিক চিত্রনাট্য ও কাহিনি লিখেছেন। প্রথমদিকে কৌতুক অভিনেতা হিসেবে চলচ্চিত্র জীবন শুরু করেন তিনি।
অভিনেতা হিসেবে চলচ্চিত্র পর্দায় আগমন ১৯৬৫ সালের দিকে। ১৯৭৬ সালে চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেনের ‘নয়নমণি’ ছবিতে খলনায়কের চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে আলোচনায় আসেন তিনি। আজও তিনি দর্শকের কাছে নন্দিত।
শিল্পকলায় অবদানের জন্য ২০১৫ সালে পেয়েছেন রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ সম্মাননা একুশে পদক। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ একাধিক পুরস্কার পেয়েছেন এ অভিনয়শিল্পী।