হারিয়ে যাবার নেই মানা

সুজন বড়ুয়া

17

সবাই বলে কোথাও নাকি
হারিয়ে যাবার নেই মানা,
কী করে হায় হারিয়ে যায়
আমার তো নেই সেই জানা
হারিয়ে যাওয়া দূরের কথা
বাইরে যাবার উপায় নেই,
তোমরা দেবে নিষেধ মানার
বেড়ি আমার দু’পায়েই।

চাইলে যেতে বনভোজনে
তোমরা বলো, ‘না বাবা’,
এমন করে বাঁধ সাধে কি
হরিণ ছানার মা-বাবা?
গহন বনে যায় না ওরা
মা-বাবাদের ছাড়িয়ে?
আমিই যেন হারিয়ে যাবো
হাত ধরো আগবাড়িয়ে!

বললে আমি কক্সবাজারে
ঘুরবো সাগর সৈকতে,
তোমরা বলো, ‘পথ হারাবে,
ঢেউয়ের ফণা ওই পথে।’

মাছগুলো রোজ বেড়ায় নাকি
ঢেউয়ের সারি মাড়িয়ে?
আমিই যেন হারিয়ে যাবো
হাত ধরো আগবাড়িয়ে !

মেলায় যাবো বললে ওতেও
হারিয়ে যাবার ভয় দেখাও
মেলার ভিড়ে তোমরা এমন
হারিয়ে যাবার ভয় যে পাও
আকাশ ভরা তারার মেলায়
চাঁদটা কি যায় হারিয়ে?
আমিই যেন হারিয়ে যাবো
হাত ধরো আগবাড়িয়ে !

সবাই বলে কোথাও নাকি
হারিয়ে যাবার নেই মানা
আমার বেলায় উল্টো কেন
আমার তো নেই সেই জানা।